পাকিস্তানের হামলার আশংকায় পাঞ্জাব সীমান্তের ১০কিঃ মিঃ মধ্যে সব গ্রাম খালি করছে ভারত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক – পাকিস্তানে ভারতীয় সেনাদের হামলার পর  পাল্টা পাক আক্রমণের আশঙ্কায়  দিন গুনছে ভারত তাই কোনও ঝুঁকি না নিয়ে আজ থেকেই পাঞ্জাব সীমান্তের দশ কিলোমিটারের মধ্যে যে সব গ্রাম রয়েছে, তা খালি করার কাজ শুরু হয়েছে। হামলার আশঙ্কায় সরকারি চিকিৎসক, নার্স ও পুলিশদের ছুটি বাতিল করে দিয়েছে পাঞ্জাব প্রশাসন। সীমান্তে পাঠানো হয়েছে বাড়তি আধাসেনা। খোঁড়া হচ্ছে বাঙ্কার। অনির্দিষ্ট কালের জন্য বাতিল করা হয়েছে আত্তারি-ওয়াঘা সীমান্তে প্রাত্যহিক সেনা মহড়া। সতর্কতা জারি হয়েছে রাজস্থান, গুজরাত এবং জম্মু ও কাশ্মীরেও। সরানো হচ্ছে সেখানকার সীমান্তবর্তী বা নিয়ন্ত্রণরেখা বরাবর গ্রামের বাসিন্দাদেরও।

gram-charche-panjaber-manus

আজ সকাল থেকেই পাক সেনাবাহিনী দাবি করছে, ভারত কোনও হামলা চালায়নি। কেবল নিয়ন্ত্রণরেখায় গুলি বিনিময় হয়েছে। এখন পাকিস্তান যদি ভারতের উপর হামলা চালায়, তা হলে এই তথ্য স্বীকার করে নেওয়া হবে যে ভারত নিয়ন্ত্রণরেখা পেরিয়ে জঙ্গি শিবিরে হামলা চালিয়েছে। যার প্রত্যুত্তরে ওই হামলা চালাতে বাধ্য হয়েছে পাকিস্তান। তবে সংশয় রয়েছে তা নিয়েও। কারণ এ নিয়ে তিন বার সরাসরি যুদ্ধে পরাজিত হওয়ার পরে চতুর্থ বার সেই ঝুঁকি নেওয়ার সাহস পাকিস্তান নেবে না বলেই মত ভারতীয়    প্রতিরক্ষা বিশেষজ্ঞদের।

তবু আশঙ্কা উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না। কারণ, এই মুহূর্তে ভারতের পশ্চিম সীমান্তে বিশেষ মহড়া অভিযান চালাচ্ছে পাক সেনা। তাতে অংশ নিয়েছে পাক সেনার স্থল ও বিমানবাহিনী। সব মিলিয়ে এই মুহূর্তে প্রায় ১৫ হাজার পাক সেনা ওই অভিযানে সক্রিয় রয়েছে।