দুটি কিডনি অকেজো হয়ে যাওয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী বিন্দুর জীবন বাঁচাতে সহযোগিতার আহবান

৩:২৫ অপরাহ্ণ | শনিবার, নভেম্বর ৫, ২০১৬ Breaking News, চট্টগ্রাম, দেশের খবর

রবিউল ইসলাম, কুমিল্লা প্রতিনিধি:

কুমিল্লা ইস্পাহানী পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজের সাবেক ছাত্রী ও বর্তমানে ব্রিটানিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন অনুষদের ৬ষ্ঠ ব্যাচের মেধাবী ছাত্রী (যার আইডি নং ১৫০১০৪০০০৭) মীর ফারহানুল জান্নাত বিন্দুর দুটি কিডনি অকেজো হয়ে গেছে। মেধাবী ছাত্রী বিন্দুর জীবন বাঁচাতে আর্থিক সহযোগিতার আহবান জানিয়েছেন তার পরিবার ও ব্রিটানিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য। বিন্দু বর্তমানে ঢাকা পিজি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তিনি কুমিল্লা বুড়িচং উপজেলার শাহ দৌলতপুর গ্রামের মীর এ.কে ফজলুল হকের কন্যা ।

জানা গেছে, বিন্দুর বাবা ময়নামতি স্কুল এন্ড কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ ফজলুল হক হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে দীর্ঘদিন ধরে নিজেই অসুস্থ হয়ে আছেন। তার দুই ছেলে দুই মেয়ে, তারা সকলেই পড়াশুনা করছেন। ইতিমধ্যে বিন্দুর দুটি কিডনি অকেজো হয়ে গেছে। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন শীঘ্রই দুটো কিডনি থেকে অন্তত একটি কিডনি প্রতিস্থাপন না হলে তাকে বাচাঁনো যাবে না। কিন্তু অর্থাভাবে তার পরিবার কিডনি প্রতিস্থাপনের উদ্যোগ নিতে পারছেন না।

bindu-kumilla

বিন্দুর ভাই নাজমুল হুদা জানান, চিকিৎসকরা জানিয়েছেন শীঘ্রই অন্তত একটি কিডনি প্রতিস্থাপন না হলে তাকে বাচাঁনো যাবে না। কিডনি প্রতিস্থাপন করতে ২৫ থেকে ৩০ লক্ষ টাকা লাঘবে। এদিকে বাবাও অসুস্থ ,আমরা (ভাই-বোন) সবাই এখনো পড়াশুনায় আছি। আমাদের আর্থিক অবস্থাও ভাল না। তাই বোনকে বাঁচাতে সমাজের বিত্তশালীদের সহযোগিতা কামনা করতেছি।

এদিকে ইস্পাহানী পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজ ও ব্রিটানিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা নিজ নিজ সামর্থ অনুযায়ী বিন্দুর প্রতি সাহায্যের হাত বাড়িয়েছেন। যদিও চিকিৎসার ব্যয়ের তুলনায় তা খুবই সামান্য। মেধাবী ছাত্রী বিন্দুকে বাচাঁতে আর্থিক সাহায্যের জন্য কুমিল্লাসহ দেশবাসীর নিকট অনুরোধ জানিয়েছেন ব্রিটানিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যসহ শিক্ষকমন্ডলী। বিন্দুর মা ‘মেয়ের’ প্রাণ রক্ষায় সকলের সহযোগিতা কামনা করেছেন। আর্থিক সাহায্যের জন্য বিন্দুর মা নাজনীন আকতারের মোবাইল নাম্বারে ০১৮৫৩৭৬২৯৯৯/ ভাই ০১৮১৪-১৫০৬৭৩ যোগাযোগ করতে অনুরোধ করা হয়েছে।

Loading...