‘মন্দির ভাঙচুরের ঘটনায় বিএনপি নেতাকে আসামি করা উদ্দেশ্যপ্রণোদিত’

৫:৫৬ অপরাহ্ণ | শনিবার, নভেম্বর ৫, ২০১৬ Breaking News, জাতীয়

সময়ের কণ্ঠস্বর – ঠাকুরগাঁওয়ে হিন্দুদের মন্দির ভাঙচুরে বিএনপি নেতাকে আসামি করা উদ্দেশ্যপ্রণোদিত বলে অভিযোগ করেছেন দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তাঁর দাবি, ঠাকুরগাঁও জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পয়গাম আলীর বিরুদ্ধে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে মামলা দেওয়া হয়েছে।

আজ শনিবার (৫ই নভেম্বর) এক বিবৃতিতে মির্জা ফখরুল এসব কথা বলেন। অপর দিকে শুক্রবার নরসিংদী জেলা ছাত্রদলের সভাপতি নজরুল ইসলাম ভূঁইয়া ও শহর স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি সুমন চৌধুরীকে গ্রেফতারের ঘটনায়ও তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান মির্জা ফখরুল।

mirja-fokhrul

মির্জা ফখরুল বলেন, দেশের বিভিন্ন জায়গায় উপাসনালয় ভাঙচুর ও লুটপাটের ঘটনা খুবই উদ্বেগ ও সন্দেহজনক। যুগ যুগ ধরে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির ভাবমূর্তিকে নষ্ট করতে এটি একটি অপকৌশল। বর্তমান শাসকগোষ্ঠী নিজেদের ব্যর্থতা ঢাকতে বিরোধীদলীয় নেতা-কর্মীদের ওপর এর দায় চাপানোকে অপকৌশল হিসেবে নিয়েছে। দেশে আবহমানকালের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করতে বিভিন্ন সম্প্রদায়ের ধর্মানুভূতিতে আঘাত করে মহল বিশেষের চক্রান্ত এখন দেশকে গভীর সংকটের দিকে ধাবিত করছে।

মির্জা ফখরুল অভিযোগ করেন, সরকার জনগণের দৃষ্টিকে ঝাপসা করতে এসব ন্যক্কারজনক ঘটনায় রাজনৈতিক স্বার্থসিদ্ধির জন্য বিরোধীদলীয় নেতা-কর্মীদের জড়িয়ে মিথ্যা মামলা দায়ের করছে। ঠাকুরগাঁও জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক পয়গাম আলীও সরকারের সেই রাজনৈতিক স্বার্থসিদ্ধি বাস্তবায়নের শিকার।