চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জে বাল্যবিয়েতে জড়িত থাকার দায়ে বর ও তাঁর ভাবীর কারাদন্ড

sdf


জাকির হোসেন পিংকু,চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি:

চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জে বাল্যবিয়ের কবল থেকে রক্ষা পেয়েছে অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী মোসা. লিখন খাতুন (১৩)। এসময় বাল্যবিয়েতে জড়িত থাকার দায়ে বর আব্দুল আলিম (২৪) ও বরের ভাবি শিউলি বেগমকে ১৫ দিন করে কারাদন্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমান আদালত। সোমবার দুপুরে এই বিয়ে বন্ধ করে প্রশাসন।

শিবগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) শফিকুল ইসলাম জানান, চককীর্তি ইউনিয়নের চাতরা গ্রামের শরিফ উদ্দিনের মেয়ে ও চাতরা ফাজিল মাদ্রাসার অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী লিখন খাতুনের সাথে জেলার গোমস্তাপুর উপজেলার চৌডালা ইউনিয়নের শুকুরবাড়ি গ্রামের বেলাল উদ্দিনের ছেলে আবদুল আলিমের বাল্য বিয়ে হচ্ছে, এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট কল্যাণ চৌধুরীর নেতৃত্বে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে বাল্যবিয়ে বন্ধ করা হয়। এ সময় বর আবদুল আলিম ও বরের ভাবি মোসা. শিউলি বেগমকে ১৫ দিন করে বিনাশ্রম কারাদন্ড দেয়া হয়।

উল্লেখ্য, গত শুক্রবার দুপুরে উপজেলার পৃথক চারটি ইউনিয়নে একসাথে ছয়টি বাল্যবিয়ে বন্ধ করে প্রশাসন। এ সময় ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে এক বরসহ বর-কনের পিতা-মাতা,চাচাসহ ১১ আত্মীয়কে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদন্ড ও ৪ জনকে বিশ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।