সুস্থ থাকতে নিয়মিত খান ফ্যাট

লাইফস্টাইল ডেস্ক: শরীরে ফ্যাটের পরিমাণ প্রয়োজনের তুলনায় কম থাকলে দেখা দিতে পারে নানান সমস্যা। জেনে নেওয়া যাক কেন প্রতি দিনের ডায়েটে রাখতেই হবে হেলদি ফ্যাট।

mas

মস্তিষ্কের সুরক্ষায়

ডিমেনশিয়া বা অ্যালঝাইমারের মতো অসুখ থেকে মস্তিষ্ককে রক্ষা করে ফ্যাট। আমাদের মস্তিষ্কের ৬০ শতাংশ ফ্যাট দিয়ে তৈরি। তাই মস্তিষ্কে শক্তি জোগাতেও প্রয়োজন হয় ফ্যাটযুক্ত খাবার।

হরমোন ক্ষরণ

ফ্যাট দেহে সেরোটোনিন হরমোন ক্ষরণ করে। এই হরমোন আমাদের মুড নিয়ন্ত্রণ করে। এ জন্য যারা সম্পূর্ণ ফ্যাট-ফ্রি ডায়েট গ্রহণ করেনদেখা যায় বেশিরভাগ সময়েই তাদের মেজাজ বিগড়ে থাকে।

রোগের উপশম করে

স্বাস্থ্যকর ফ্যাট, যেমন ওমেগা ৩ ফ্যাটি অ্যাসিডে মাইগ্রেন, মাল্টিপল স্ক্লরোসিস এর মতো একাধিক রোগের উপশম করে।

সংক্রমণ থেকে রক্ষা করে

আমাদের দেহের প্রতিটি কোষ এবং টিস্যুর ওপরেই ফ্যাটের আস্তরণ থাকে। যা বিভিন্ন রোগ এবং সংক্রমণের হাত থেকে বাঁচায়।

হাড় শক্ত করে

পরোক্ষভাবে ফ্যাট আমাদের হাড়ও শক্ত করে। হাড় সুস্থ রাখার জন্য দরকার হয় ক্যালসিয়াম। আর এই ক্যালসিয়ামকে হাড়ের মধ্যে সঞ্চিত করার কাজটি করে ফ্যাট।

ত্বক ও চুলের সুরক্ষা করে

ত্বক ও চুলের স্বাস্থ্য ভালো রাখতে অবশ্যই ডায়েটে ফ্যাট খান। ফ্যাটের অভাবে রুক্ষ-শুষ্ক হয়ে যায় চুল। ত্বকও ড্রাই এবং নিষ্প্রাণ হয়ে যায়। এ কারণে ফ্যাট খেতে হবে।

বিভিন্ন রোগ থেকে মুক্তি

ফ্যাট আমাদের স্নায়ুতন্ত্রের মধ্যে সিগনালিংয়ের কাজ করে। নার্ভ সুস্থ রাখতে, খিঁচুনি, অবসাদ, ট্রমার মতো রোগ থেকে আমাদের রক্ষা করে হেলদি ফ্যাট।

রোগ প্রতিরোধক ক্ষমতা বাড়ায়

রোগ প্রতিরোধক ক্ষমতা বাড়ায় স্যাচুরেটেড ফ্যাট। তাই যারা খুব কম ফ্যাটযুক্ত খাবার খান তাদের সহজেই সংক্রামক রোগ হওয়ার সম্ভাবনা থেকে যায়।