ফুলবাড়ীতে ৩য় শ্রেণীর ছাত্রীকে ধর্ষনের চেষ্টায় মামলা, আটক-১

অনীল চন্দ্র রায়, ফুলবাড়ী প্রতিনিধি: কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ীতে টাকার লোভ দেখিয়ে ৩য় শ্রেণীর ছাত্রীকে ধর্ষনের চেষ্টার অভিযোগে থানায় মামলা দায়ের হয়েছে। পুলিশ অভিযুক্তকে আটক করে জেল হাজতে প্রেরন করেছে। ঘটনাটি ঘটেছে গতকাল সোমবার রাত ৯টার দিকে উপজেলার বড়ভিটা ইউনিয়নের নওদাবশ গ্রামে।

atokk

এলাকাবাসী ও মামলা সুত্রে জানা গেছে, ওই গ্রামের নুর ইসলামের কন্যা নওদাবশ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৩য় শ্রেনীর ছাত্রী (৮) নিজ ঘরে পড়াশোনা করছিল। মা সহিদা বেগম রাতের রান্নায় ব্যস্ত ছিলেন। পড়ার ঘরে একাকী থাকার সুবাদে প্রতিবেশী মৃত আজকার আলীর ছেলে আব্দুল মালেক (৪১) ঘরে ঢুকে ১৫০ টাকা ওই ছাত্রীর হাতে গুজে দিয়ে জোর পূর্বক পরনের প্যান্ট খোলার চেষ্টা করে এবং শরীরের স্পর্ষকাতর অঙ্গে হাত দেয়।

ওই ছাত্রীর চিৎকারে তার মা ও পাশের বাড়ীর মহিলারা ছুটে এলে আব্দুল মালেক পালিয়ে যায়। এ ঘটনা এলাকায় জানাজানি হলে এলাকাবাসী একত্রিত হয়ে আব্দুল মালেকের বাড়ী ঘেরাও করে রাখে। খবর পেয়ে ফুলবাড়ী থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ধর্ষককে আটক করে থানা নিয়ে আসেন। পরে আজ মঙ্গলবার ওই ছাত্রীর পিতা বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করলে পুলিশ আটক আসামীকে জেল হাজতে প্রেরন করেছে।

এ ব্যাপারে ফুলবাড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এবিএম রেজাউল ইসলাম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন।