বিমানবন্দরে আটকে দেয়া হলো শফিক রেহমানকে

সময়ের কণ্ঠস্বর- জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক শফিক রেহমানকে ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে আটকে দিয়েছে ইমিগ্রেশন পুলিশ। সকাল ৭টায় টার্কিশ এয়ারলাইন্সের একটি বিমানে তার লন্ডনে যাবার কথা ছিল।

ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় নেতা ও শফিক রেহমানের সহযোগী তারিকুল ইসলাম চয়ন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

132187_16
ফাইল ফটো

চয়ন জানান, ক্যান্সার আক্রান্ত অসুস্থ স্ত্রীকে দেখতে মি. রেহমান লন্ডনে যাবার জন্য বিমানবন্দরে যান। কিন্তু বিমানবন্দরে ইমগ্রেশন পুলিশ, মি. রেহমানের বিদেশ ভ্রমণের ব্যপারে তাদের কাছে কোন তথ্য নেই, জানিয়ে তাকে বাধা দেয়।

মি. ইসলাম জানিয়েছেন, মি. রেহমানের বিদেশে যেতে কোন নিষেধাজ্ঞা নাই। এছাড়া গ্রেপ্তারের পর আটক করা তার পাসপোর্টটিও কর্তৃপক্ষ তিনদিন আগে ফেরত দিয়েছে।

তিনি বলেন, ‘উচ্চ আদালতের রায় থাকা সত্ত্বেও সাংবাদিক শফিক রেহমানকে লন্ডনে ক্যান্সার আক্রান্ত স্ত্রীকে দেখতে যেতে দেয়া হয়নি। শেষ মুহূর্তে কোনো নিয়ম-নীতির তোয়াক্কা না করে তাকে বিমানে উঠতে বাধা দেয়া হয়। এ সময় তার লাগেজ বিমান থেকে নামিয়ে দেয়া হয়।’ পরে শফিক রেহমান রাজধানীর ইস্কাটনের বাসায় ফিরে আসেন বলেও জানান চয়ন।

এদিকে, মি. রেহমানকে বিদেশে যেতে বাধা দেবার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বিমানবন্দরের ইমিগ্রেশন পুলিশের একজন কর্মকর্তা। তবে তিনি বিষয়টির বিস্তারিত জানাতে অপরাগতা প্রকাশ করেছেন।

উল্লেখ্য, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার তথ্যপ্রযুক্তি উপদেষ্টা ও তার ছেলে সজীব ওয়াজেদ জয়কে অপহরণ করে হত্যা পরিকল্পনার অভিযোগে গত বছরের ১৬ এপ্রিল রাজধানীর ইস্কাটনের নিজ বাসা থেকে গ্রেফতার করা হয়েছিল সাংবাদিক শফিক রেহমানকে। সেপ্টেম্বরে জামিনে মুক্তি পান তিনি।