আত্রাইয়ে ৬ষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্রীকে মুখ বেঁধে জোর পূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা, আটক ১

নাজমুল হক নাহিদ, আত্রাই, নওগাঁ প্রতিনিধিঃ

নওগাঁর আত্রাই উপজেলার উচলী কাশিমপুর গ্রামের ৬ষ্ঠ শ্রেণীর এক ছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টাকালে এনামুল হক (১৮) নামের এক যুবককে আটক করে পুলিশে সোর্পদ করেছে গ্রামবাসী। আজ বৃহস্পতিবার সকাল ৯টার দিকে উপজেলার তারাটিয়া ছোটডাঙ্গা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। ছাত্রীটি তারাটিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৬ষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্রী। আটককৃত এনামুল উপজেলার তারাটিয়া ছোটডাঙ্গা গ্রামের মোঃ গোকুলের ছেলে।

এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, আজ বৃহস্পতিবার সকাল ৯টার দিকে উপজেলার ১নং শাহাগোলা ইউনিয়নের উচলী কাশিমপুর গ্রামের জনৈক ব্যক্তির মেয়ে ৬ষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্রী সপ্নিল (১২) (ছদ্মনাম) প্রতিদিনের ন্যায় স্কুলে যাওয়ার জন্য বাসা থেকে বেরিয়ে যায়। পথিমধ্যে পার্শ্ববর্তী তারাটিয়া ছোটডাঙ্গা গ্রামের এনামুল হক তার পথ রোধ করে। পরে রাস্তার পাশে ভ’ট্টার জমিতে তাকে নিয়ে গিয়ে তার মুখ বেঁধে জোর পূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা করে।

stop-rape

তাৎক্ষণিক মিয়েটি তাকে ধাক্কা দিয়ে মাটিতে ফেলে বাঁচার জন্য চিৎকার করতে থাকে। এ সময় মিয়েটির চিৎকার শুনে এলাকাবাসী ছুটে এসে এনামুল হক কে হাতে নাতে আটক করে। পরে স্থানীয়রা থানায় খবর দিলে পুলিশ এনামুল হক কে গ্রেফতার করে।

এ বিষয়ে আত্রাই থানা অফিসার ইনচার্জ ( ওসি) বদরুদ্দোজা ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে সময়ের কণ্ঠস্বরকে বলেন, এনামুল হক কে আটক করা হয়েছে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে জানা যায়।