শ্রীপুরে বিএনপির দুই শতাধিক নেতা-কর্মী সমর্থক আ’লীগে যোগদান

রেজাউল সরকার (আঁধার), গাজীপুর প্রতিনিধি: জেলার শ্রীপুর উপজেলা বিএনপির সাবেক সহ-সভাপতি ও গাজীপুর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মোঃ আবুল হাশেম এমএ’র নেতৃত্বে গাজীপুর ইউনিয়নের দুই শতাধিক বিএনপির নেতা ও কর্মী সমর্থক আওয়ামী লীগে যোগ দিয়েছেন। এ সময় গাজীপুর জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ ইকবাল হোসেন সবুজ তাদেরকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান।

ful

গতকাল শুক্রবার রাত ১০টার দিকে মেম্বার বাড়ি জামে মসজিদের আয়োজনে নগর হাওলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠে এক ওয়াজ মাহ্ফিলে বিএনপি নেতা-কর্মীরা দলটিতে যোগ দেন। এক সঙ্গে এত নেতা-কর্মীর আওয়ামী লীগে যোগদানের বিষয়টি এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করেছে।

মাহফিলে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ ইকবাল হোসেন সবুজ। আরো উপস্থিত ছিলেন জেলা শ্রমিকলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শ্রীপুর পৌর মেয়র মোঃ আনিছুর রহামন ও জেলা পরিষদের সদস্য মোঃ আবুল খায়ের বিএসসি, সাবেক কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ নেতা এড. মোশারফ হোসেন, কাউন্সিলর মোঃ আমজাদ হোসেন, শাহজাহান মন্ডল, সিনিয়র আ’লীগ নেতা মোঃ লিয়াকত ফকির, সাবেক ইউপি সদস্য মোঃ মকবুল হোসেন, ইউপি সদস্য মোঃ আব্দুল আজিজ, বঙ্গবন্ধু ছাত্র পরিষদের গাজীপুর জেলা সভাপতি আজিজুর রহমান জন, সাধারণ সম্পাদক মোঃ রসি সরকারসহ আওয়ামীলীগের বিভিন্ন ইউনিটের নেতাকর্মী, জনপ্রতিনিধি, বিভিন্ন মসজিদের ইমাম, শিক্ষক ও স্থানীয় একালাবাসী। সভায় সভাপতিত্ব করেন গাজীপুর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মোঃ আবুল হাসেম এমএ।

রাত ১০ টার দিকে গাজীপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ও শ্রীপুর উপজেলা বিএনপির সাবেক সহ-সভাপতি মোঃ আবুল হাসেম এমএ’র নেতৃত্বে দুই শতাধিক নেতা-কর্মী আওয়ামীলীগে যোগ দেন। এ সময় তার সঙ্গে আরো যোগদেন গাজীপুর ইউনিয়ন যুব-দলের সাবেক যুগ্ম-সম্পাদক মোঃ আবুল হাসেম, সাবেক ওয়ার্ড ছাত্রদলের সভাপতি শহিদুল ইসলাম, যুবদলনেতা তাজুল ইসলাম, মনির হোসেন, আক্তারুজ্জামান খানসহ প্রায় দুই শতাধিক নেতাকর্মী।

আবুল হাসেম এমএ বলেন, তিনি বিএনপির প্রতিষ্ঠাকাল থেকে বিএনপির রাজনীতির সঙ্গে জড়িত ছিলেন। প্রথমে গাজীপুর ইউনিয়ন শাখার সহ-সভাপতি হিসেবে পাঁচ বছর দায়িত্ব পালনের পর বর্তমান সময় পর্যন্ত তিনি উপজেলা কমিটির সদস্যসহ বিভিন্ন পদে দায়িত্ব পালন করেছেন। কিন্তু মুক্তিযুদ্ধের বিরোধী শক্তির সঙ্গে বিএনপির রাজনৈতি করা, তৃণমূল পর্যায়ের নেতা-কর্মীদের অবমূল্যায়নসহ জনগণের মৌলিক দাবিগুলো নিয়ে আন্দোলন না করে ক্ষমতায় আসার রাজনীতিকে প্রধান করে তোলায় তিনি এবং তার অনুসারীরা বিএনপি থেকে অব্যাহতি নিয়ে আওয়ামী লীগে যোগ দিয়েছেন।

তিনি আরো বলেন, আওয়ামী লীগ মুক্তিযুদ্ধের দল। আর আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকলে সারা দেশসহ বিশেষ করে আমাদের ঢাকার উত্তরের মানুষের উন্নয়ন ঘটে। জনগণ ও এলাকার উন্নয়নের স্বার্থেই তার এই যোগদান।

জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ ইকবাল হোসেন সবুজ বলেন, ‘যারা আওয়ামী লীগের উন্নয়নের রাজনীতি দেখে অনুপ্রাণিত হয়ে আমাদের দলে আসছেন তাদের আমরা স্বাগত জানাই। এতে আমাদের দল আরো সুসংগঠিত ও শক্তিশালী হবে।’

তিনি আরো বলেন, আওয়ামী লীগে যোগদান করায় স্থানীয় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক শক্তি আরো বৃদ্ধি পাবে। তারা এখন সম্মিলিতভাবে এলাকার ও জনগণের জন্য কাজ করতে পারবেন।