দক্ষিণ চীন সাগর ক্যারিবিয়ান নয়: আমেরিকাকে চীনের হুঁশিয়ারি

4bmu4caf296768n0xm_800C450


আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ

দক্ষিণ চীন সাগরে ক্যারিবিয়ান সাগরের মতো আচরণ করার ব্যাপারে আমারিকাকে সতর্ক করে দিয়েছে বেইজিং। চীন বলেছে, দক্ষিণ চীন সাগরকে সামরিকীকরণের চেষ্টা করা হলে সংশ্লিষ্ট এলাকায় বেইজিং সামরিক ব্যবস্থা মোতায়েন করবে।

চীনের রাষ্ট্র-নিয়ন্ত্রিত পত্রিকা ‘গ্লোবাল টাইমস’ আজ এক উপ-সম্পাদকীয় প্রকাশ করে এ হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছে।  দক্ষিণ চীন সাগর নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র ও চীনের মধ্যে তীব্র উত্তজনার মধ্যে এই উপ-সম্পাদকীয় প্রকাশ করা হলো।  গ্লোবাল টাইমসের যেকোনো নিবন্ধকে চীনের রাষ্ট্রীয় অবস্থান বলে ধরে নেয়া হয়।

চলতি মাসের গোড়ার দিকে মার্কিন নৌবাহিনী দক্ষিণ চীন সাগরে একটি বিমানবাহী রণতরী ও একটি ডেস্ট্রয়ারসহ বেশ কিছু যুদ্ধজাহাজ পাঠায়। আমেরিকা দাবি করে, এটি তাদের ‘নিয়মিত টহল’।  এর প্রতিক্রিয়ায় চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সতর্ক করে দিয়ে ঘোষণা করে, অবাধ চলাচলের আন্তর্জাতিক আইনের অপপ্রয়োগ করে উপকূলবর্তী দেশগুলোর নিরাপত্তা ও সার্বভৌমত্ব হুমকির মুখে ফেলেছে ওয়াশিংটন।

গ্লোবাল টাইমসের নিবন্ধে এ সম্পর্কে বলা হয়েছে, আমেরিকা যতদিন দক্ষিণ চীন সাগরে উস্কানিমূলক তৎপরতা থেকে বিরত থাকবে ততদিন ওই পানিসীমায় শান্তি বজায় থাকবে। কিন্তু মার্কিন সেনাবাহিনী যদি বেইজিংকে ভয় দেখানোর নীতিতে অটল থাকে তাহলে দক্ষিণ চীন সাগরের দ্বীপগুলোতে অত্যাধুনিক সামরিক সরঞ্জাম ও সেনা মোতায়েন দেখতে বাধ্য হবে তারা।

চীনা রাষ্ট্র নিয়ন্ত্রিত দৈনিকটির উপ-সম্পাদকীয়তে আরো বলা হয়েছে, “দক্ষিণ চীন সাগর ক্যারিবীয় সাগর নয় যে এখানে আমেরিকা বেপরোয়া আচরণ করবে।  মার্কিন জেনারেলরা বলছেন প্রয়োজন হলে তারা যুদ্ধ করবেন।  তাহলে আপনারাও শুনে রাখুন চীনের পিপলস লিবারেশন আর্মিও প্রস্তুতি নিচ্ছে।”