কালিয়াকৈরে ষষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্রী অন্তঃসত্তা : ধর্ষক আটক

আলমগীর হোসেন, কালিয়াকৈর প্রতিনিধি: গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার অলিয়ারচালা এলাকায় স্কুল থেকে বাড়ি ফেরার পথে ধর্ষণের শিকার হয় ষষ্ঠ শ্রেণীর এক স্কুল ছাত্রী।

Rape-Survivors-atok

ওই ঘটনায় স্কুল ছাত্রী সাত মাসের অন্তঃসত্তা হয়ে পড়ার অভিযোগে নূর মোহাম্মদ আলী (৪৮) নামে এক ধর্ষককে গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ। রবিবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে নূর মোহাম্মদকে তার নিজ বাড়ি থেকে আটক করা হয়। আটককৃত নূর মোহাম্মদ কালিয়াকৈর উপজেলার অলিয়ারচালা এলাকার মৃত কছিম উদ্দিনের ছেলে। তিনি সম্পর্কে ওই ছাত্রীর প্রতিবেশী নানা হন।

ধর্ষিতার পরিবার ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, ওই ছাত্রী কালিয়াকৈর উপজেলার অলিয়ারচালা এলাকায় তার নানির বাড়িতে থেকে পড়ালেখা করে। সে বড়ইবাড়ি এ.কে.ইউ ইনস্টিটিউশন স্কুল অ্যান্ড কলেজের ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী। সে প্রতিদিন নূর মোহাম্মদ আলীর বাড়ির সামনে দিয়ে স্কুলে যাতায়াত করতো।

এ সুযোগে নূর মোহাম্মদ বিভিন্ন সময় ওই ছাত্রীকে কু-প্রস্তাব দিতো। এতে ওই ছাত্রী রাজি না হলে তাকে বিভিন্ন ভাবে ভয় দেখাতো। সাত মাস আগে বাড়িতে কেউ না থাকায় এ সুযোগে স্কুল থেকে বাড়ি ফেরার পথে ওই ছাত্রীকে জোর করে নূর মোহাম্মদ তার ঘরে নিয়ে ধর্ষণ করে।

ওই ছাত্রী ভয়ে ঘটনাটি কাউকে জানায়নি। পরে ওই ছাত্রীর দৈহিক পরিবর্তন দেখে পরিবারের লোকজনের সন্দেহ হয়। পরে গত ২৪ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার পরিবারের লোকজন তাকে উপজেলার সফিপুর জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে ডাক্তারি পরীক্ষা করান। ওই পরীক্ষায় ধরা পড়ে ছাত্রীটি সাত মাসের অন্তঃসত্তা।

বিষয়টি জানতে পেরে রবিবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) সকালে ওই ছাত্রীর মামা বাদী হয়ে কালিয়াকৈর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগের ভিত্তিতে ওই দিন দুপুরে নূর মোহাম্মদকে তার নিজ বাড়ি থেকে আটক করে পুলিশ।

কালিয়াকৈর থানার সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) কামাল হোসেন সময়ের কণ্ঠস্বরকে জানান, আটক নূর মোহাম্মদ আলী প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ওই ছাত্রীকে জোর করে ধর্ষণের বিষয়টি স্বীকার করেছেন। পরে আজ সোমবার দুপুরে তাকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরন করা হয়েছে।