রংপুরে জাপানি নাগরিক কুনিও হোসি হত্যা মামলায় ৫ জনের ফাঁসি

17012375_422234588120951_2104539520_n


শাহরিয়ার মিম,রংপুর:

রংপুরের চাঞ্চল্যকর জাপানি নাগরিক কুনিও হোসি হত্যা মামলায় ৫ জনকে ফাঁসি দেওয়া হয়েছে। আজ মঙ্গলবার সকালে রংপুরের বিশেষ জজ নরেশ চন্দ্র সরকারের আদালতে এই রায় দেন। মঙ্গলবার সকাল পৌনে ১০টা থেকে ১১টার মধ্যে এই রায় দেওয়া হয়।

এর আগে রায় পড়ার সময় মামলার আসামি নিষিদ্ধ ঘোষিত জামায়াতুল মুজাহিদিন বাংলাদেশের ( জেএমবি) আট জঙ্গির মধ্যে গ্রেপ্তারকৃত পাঁচজনকে কারাগার থেকে আদালতে হাজির করা হয়েছে। তারা হচ্ছেন- জেএমবি’ র পীরগাছার আঞ্চলিক কমান্ডার উপজেলার পশুয়া টাঙ্গাইলপাড়ার মাসুদ রানা ওরফে মামুন ওরফে মন্ত্রী ( ২১) , একই এলাকার ইছাহাক আলী ( ২৫ ) , বগুড়ার গাবতলী এলাকার লিটন মিয়া ওরফে রফিক ( ২৩ ) , পীরগাছার কালীগঞ্জ বাজারের আবু সাঈদ ( ২৮ ) এবং গাইবান্ধার সাঘাটার হলদিয়ার চর এলাকার সাখাওয়াত হোসেন ( ৩২ ) । বাকি তিন আসামির মধ্যে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী কুড়িগ্রামের রাজারহাটের মকর রাজমাল্লী এলাকার আহসান উল্লাহ আনসারী ওরফে বিপ্লব ( ২৪ ) পলাতক। অন্য দু ’ জন বন্দুকযুদ্ধে নিহত হওয়ায় তাদেরকে মামলার অভিযোগ থেকে বাদ দিয়ে রায় ঘোষিত হচ্ছে।

তাদের মধ্যে পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জের গজপুরি এলাকার নজরুল ইসলাম ওরফে হাসান ওরফে বাইক হাসান ( ২৮ ) অভিযোগ গঠনের আগেই গত বছরের ০১ আগস্ট রাজশাহীতে এবং কুড়িগ্রামের রাজারহাটের চর বিদ্যানন্দ এলাকার সাদ্দাম হোসেন ওরফে রাহুল ওরফে চঞ্চল ওরফে সবুজ ওরফে রবি ( ২১ ) অভিযোগ গঠনের পরে গত ০৫ জানুয়ারি ঢাকার মোহাম্মদপুর বেড়িবাঁধে বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয়েছেন।

জেএমবি’ র ওই আট জঙ্গির বিরুদ্ধে গত বছরের ০৭ আগস্ট রংপুরের জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিমের আদালতে অভিযোগপত্র দেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা কাউনিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ( ওসি ) আব্দুল কাদের জিলানী। পরে মামলাটি রংপুরের বিশেষ জজ নরেশ চন্দ্র সরকারের আদালতে স্থানান্তরিত হলে গত বছরের ১৫ নভেম্বর সাত আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করে বিচারিক কার্যক্রম শুরু হয়। মামলায় বাদীপক্ষের ৫৫ জন সাক্ষী এবং আসামিপক্ষের একজন সাফাই সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ করেছেন আদালত। গত ১৪ ফেব্রুয়ারি আসামি সাখাওয়াত হোসেনের পক্ষে আব্দুল মজিদ মণ্ডল আদালতে সাফাই সাক্ষ্য দেন।

এর মধ্য দিয়ে সাক্ষ্যগ্রহণ পর্ব শেষ হয়। গত ১৯ ফেব্রুয়ারি উভয়পক্ষের যুক্তিতর্ক ( আর্গুমেন্ট ) উপস্থাপনের মধ্য দিয়ে মামলার বিচার কাজ শেষ হলে ২৮ ফেব্রুয়ারি রায়ের দিন ধার্য করেন আদালত। বাদীপক্ষে মামলা পরিচালনা করেন স্পেশাল পাবলিক প্রসিকিউটর ( পিপি) রথীশ চন্দ্র ভৌমিক। আসামিপক্ষে মামলা পরিচালনা করেন অ্যাডভোকেট আফতাব হোসেন ও আবুল হোসেন। ২০১৫ সালের ০৩ অক্টোবর সকালে জাপানি নাগরিক কুনিও হোসিকে কাউনিয়া উপজেলার আলুটারি এলাকায় গুলি করে হত্যা করেন নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন জেএমবি’ র জঙ্গিরা।