একজন প্রভাবশালী মন্ত্রীর মদদে এ ধর্মঘট: ফখরুল

সময়ের কণ্ঠস্বর– বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, পরিবহন ধর্মঘটের পেছনে যিনি মদদ জোগাচ্ছেন তিনি সরকারের একজন প্রভাবশালী মন্ত্রী। আজকে এভাবে একটি অরাজক পরিবেশ সৃষ্টি করা হচ্ছে। সম্পূর্ণ ব্যক্তি ও দলীয় স্বার্থে দেশব্যাপী পরিবহন ধর্মঘটের মাধ্যমে গোটা দেশকে ধ্বংস করেছে। সরকার এই সমস্যা সমাধানে ব্যর্থ হয়েছে।

বুধবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে ২৫ ও ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০০৯ পিলখানায় শহীদ সেনা কর্মকর্তাদের স্মরণে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

fakrul20170301140924চলমান পরিবহন শ্রমিক ধর্মঘট প্রসঙ্গে ফখরুল বলেন, উত্তরা থেকে আসার সময় দেখলাম রাস্তায় গাড়ি চলছে, কোন পাবলিক পরিবহন নেই। অসম্ভব কষ্ট মানুষের। মহিলারাও এর থেকে রেহাই পাচ্ছে না।

তিনি বলেন, গতরাতে গাবতলিতে শ্রমিকদের সাথে পুলিশের গোলাগুলি হয়েছে। সংঘর্ষ হচ্ছে। আজকে কিছুক্ষণ আগে খবর পেয়েছি পুলিশের গুলিতে একজন শ্রমিক মারা গেছেন। সমস্থ দেশের মানুষ আজকে চরম অস্থিতিশীল ও অনিশ্চয়তার মধ্যে পড়েছে। এই সরকার শুধু ব্যক্তিগত ও দলীয় স্বার্থে গোটা দেশকে ধ্বংস করছে।

গ্যাসের দাম বাড়ানোর সমালোচনা করে বিএনপির মহাসচিব বলেন, এটা সম্পূর্ণ অনৈতিক ও অযৌক্তিক।

মির্জা ফখরুল দাবি করেন, এখন বিচার বিভাগ, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী, গণমাধ্যম—সরকার সব নিয়ন্ত্রণ করার চেষ্টা করছে। কারণ, তারা একদলীয় শাসন কায়েম করবে। বিচারের নামে সরকার মিথ্যা মামলা দিয়ে গোটা দেশকে কারাগারে পরিণত করেছে।

ফখরুল বলেন, নির্বাচন সম্পর্কে বিএনপির বক্তব্য স্পষ্ট। বিএনপি নির্বাচন চায়, বিএনপি একটি গণতান্ত্রিক দল। কিন্তু সে নির্বাচন অবশ্যই নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে হতে হবে।