সাকাপুত্র হুম্মাম কাদেরকে ৭ মাস পর ফেরত দিয়ে গেছে ‘অজ্ঞাত বাহিনী’

সময়ের কণ্ঠস্বর – বিএনপি নেতা মরহুম সালাহউদ্দিন কাদের চৌধুরীর পুত্র হুম্মাম কাদেরকে ফেরত দিয়ে গেছে ‘অজ্ঞাত বাহিনী’।

বুধবার রাত ৩ টায় ‘অজ্ঞাত বাহিনী’ হুম্মাম কাদেরকে তাদের ধানমন্ডির বাসার কাছে রেখে গেছে বলে জানা গেছে।

পারিবার দাবি, সাত মাস আগে আদালত প্রাঙ্গন থেকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পরিচয়ে তাকে ধরে নিয়ে যাওয়া হয়।

বৃহস্পতিবার সামাজিক মাধ্যমে হুম্মাম কাদের চৌধুরীর বেশ কিছু ছবি ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে। সর্বশেষ ছবিতে দেখা যায় হুম্মাম বেশ শুকিয়ে গেছেন।

জানা গেছে, সাত মাস আগে, বৃহস্পতিবার দুপুরে ঢাকা সিএমএম আদালতের সামনে থেকে ‘ডিবি’ পরিচয়ে তাকে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়ে বলে জানিয়েছেন তার আইনজীবী।

হুম্মামের আইনজীবী মিনহাজ উদ্দিন চৌধুরী শিবলী তখন জানিয়েছিলেন, নিম্ন আদালতে নিয়মিত হাজিরা দিতে আদালতে গেলে এ ঘটনা ঘটে।

তিনি বলেন, ‘ট্রাইবুনালে হাজিরার সময় হুম্মাম কাদের ও তার মা ফারহাত কাদের চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন। তারা নিয়মিত হাজিরা দিতেই সেখানে গিয়েছিলেন। এ সময় ডিবি পরিচয় দিয়ে আদালত প্রাঙ্গণ থেকেই হুম্মামকে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়।’

পরে হুম্মামকে ছাড়াই ফারহাত কাদের ওই মামলায় হাজিরা দেন বলেও তিনি জানিয়েছিলেন।

hummam

তবে হুম্মামকে পুলিশ আটক করেছে কি না, আটক করা হলে তাকে কোথায় নেয়া হয়েছে, এসব বিষয়ে পুলিশের কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

যুদ্ধাপরাধের অভিযোগে ২০১৩ সালের ১ অক্টোবর সাকা চৌধুরীর ফাঁসির রায় দেয় ট্রাইব্যুনাল। কিন্তু তার আগেই ইন্টারনেটে সেই রায় প্রকাশ হয়ে যায়। এই ঘটনায় সালাউদ্দিন কাদেরের স্ত্রী ফারহাত কাদের চৌধুরী, ছেলে হুম্মাম কাদের চৌধুরী, সাকা চৌধুরীর আইনজীবী ফখরুল ইসলামসহ সাত জনের বিরুদ্ধে তথ্য প্রযুক্তি আইনে মামলা করে ট্রাইব্যুনালের প্রসিকিউশন বিভাগ।

মিন্টো রোডে গোয়েন্দা পুলিশ কার্যালয়ে হুম্মামদের পারিবারিক বন্ধু পরিচয় দিয়ে সায়েম নামের একজন বলেন, তিনিও ওই গাড়িতে ছিলেন। ছয়জন গাড়ির গতিরোধ করে। হুম্মামকে গাড়ি থেকে নামিয়ে ডিবির পরিচয় দেয় তারা।

হুম্মামকে ডিবি কার্যালয়েই রাখা হয়েছে বলে দাবি করেন সায়েম।