সংসদ চলবে আগামী ১১ মার্চ অবধি

স্টাফ রিপোর্টার, সময়ের কণ্ঠস্বর . দশম জাতীয় সংসদ চলতি অধিবেশনের কার্যক্রম আগামী ৯ মার্চে শেষ হওয়ার কথা থাকলেও ২ দিন বেড়ে ১১ মার্চ পর্যন্ত চলবে বলে জানিয়েছেন স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী। তবে ৯ মার্চ রাষ্ট্রপতির ভাষণে আনীত ধন্যবাদ প্রস্তাবের ওপর আলোচনা শেষ করা হবে বলেও জানান তিনি।

স্পিকার জানান, ১১ মার্চ পর্যন্ত সংসদ অধিবেশন চলমান থাকবে। ২৫ মার্চকে ‘গণহত্যা দিবস’ ঘোষণা সম্বলিত সংসদে জমা দেয়া একটি নোটিশের ওপর সাধারণ আলোচনা অনুষ্ঠিত হবে আগামী ১১ মার্চ।

২ মার্চ বৃহস্পতিবার অধিবেশনের শুরুতেই স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী এ ঘোষণা দেন। এর আগে বিকেল ৫ টা ১২ মিনিটে তার সভাপতিত্বে সংসদের অধিবেশন শুরু হয়।

এর আগে গত ১৫ ফেব্রুয়ারি সংসদে এক অনির্ধারিত আলোচনায় সংসদ নেতা ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা একাত্তরে পাকিস্তানি বাহিনীর নির্মমতা ভবিষ্যৎ প্রজন্মও যেন জেনে বড় হয়, সে লক্ষ্যে ২৫ মার্চ গণহত্যা দিবস হিসেবে পালনের উদ্যোগ নিতে বলেন।

সেসময় স্পিকার শিরীন শারমিন বলেছিলেন, ২৫ মার্চে গণহত্যা দিবস পালনের দাবি সম্বলিত একটি প্রস্তাব আমি ইতোমধ্যেই পেয়েছি। আমাদের একজন মাননীয় সংসদ সদস্য বিষয়টি দিয়েছেন। আমরা অগ্নিঝরা মার্চের যে কোনো একদিন সংসদের বৈঠকে আলোচনা করব।

উল্লেখ্য, পাকিস্থান থেকে প্রকাশিত একটি বইয়ে মিথ্যা তথ্যের বিরুদ্ধে সংসদে আলোচনার সূত্রপাত করেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ। তার আলোচনার সুত্রপাত ধরেই ২৫ মার্চকে ‘গণহত্যা দিবস’ হিসেবে পালন করার বিষয়ে কথা বলেণ প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামীলীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা।