কাজী আনোয়ার চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবেন : খালেদা জিয়া

সময়ের কণ্ঠস্বর – বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য ও সাবেক সংসদ সদস্য কাজী আনোয়ার হোসেনের মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন খালেদা জিয়া।

খালেদা জিয়া জানান, দেশের স্বাধীনতা, সার্বভৌমত্ব ও গণতন্ত্র রক্ষার অঙ্গীকারে শহীদ জিয়া প্রবর্তিত ধারাকে অক্ষুন্ন রাখতে তিনি ছিলেন অবিচল। এক্ষেত্রে তার অবদান বিএনপি নেতাকর্মীদের মনে চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবেন।

শুক্রবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক বাণীতে এ শোক জানান বিএনপি চেয়ারপারসন।

কাজী আনোয়ার হোসেন (৬৩) শুক্রবার দুপুরে রাজধানীর এ্যাপোলো হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।

শোক বাণীতে খালেদা জিয়া বলেন, কাজী আনোয়ার হোসেন নিজ এলাকায় একজন জনপ্রিয় রাজনীতিবিদ হিসেবে সুপরিচিত ছিলেন।

khaleda

রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের নীতি ও আদর্শের বলিষ্ঠ অনুসারী আনোয়ার হোসেন এলাকার বিএনপি নেতাকর্মী ও জনগণের মধ্যে ছিলেন অত্যন্ত সমাদৃত।

জনপ্রতিনিধি হিসেবে জনকল্যানমূলক কাজে তিনি যে অবদান রেখেছেন সে কারণে এলাকাবাসী তাকে বারবার সংসদ সদস্য হিসেবে নির্বাচিত করেছে।

বহুদলীয় গণতান্ত্রিক চেতনাকে দৃঢ়ভাবে বুকে ধারণ করে মানুষের বাক-ব্যক্তি ও মত প্রকাশের স্বাধীনতার স্বপক্ষে গণতান্ত্রিক আন্দোলনে বিএনপি’র প্রতিটি কর্মসূচিতে তিনি সক্রিয় ভূমিকা পালন করেছিলেন বলে স্মরণ করেন বেগম জিয়া।

তিনি বলেন, বাংলাদেশী জাতীয়তাবাদী দর্শনই ছিল আনোয়ারের রাজনীতি ও কর্মকাণ্ডের মূল প্রেরণা। তিনি ছিলেন অত্যন্ত উদার, সজ্জন ও বিনয়ী স্বভাবের একজন মানুষ। বিএনপিকে সুসংগঠিত ও শক্তিশালী করতে তিনি রাজনৈতিক জীবনে নিবেদিতপ্রাণ হয়ে কাজ করে গেছেন। মানুষের প্রতি গভীর ভালবাসাবোধ ও জনকল্যাণের মহান ব্রত নিয়ে রাজনীতি করতেন বলেই তিনি এলাকাবাসীর নিকট ছিলেন অত্যন্ত আপনজন।

সাবেক প্রধানমন্ত্রী বলেন, দেশের এই দুর্দিনে আনোয়ারের মতো একজন অভিজ্ঞ ও আদর্শনিষ্ঠ রাজনীতিবিদের পৃথিবী থেকে বিদায়ে আমি গভীরভাবে ব্যথিত। তিনি আনোয়ার হোসেনের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন এবং শোকার্ত পরিবার, গুণগ্রাহী ও শুভানুধ্যায়ীদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।