সিলেটে গ্রামবাসী-পুলিশ সংঘর্ষে নিহত ২, পুলিশসহ আহত অর্ধশতাধিক

সিলেট প্রতিনিধি – সিলেটের কোম্পানীগঞ্জে বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসীর কাছ থেকে আটক ডাকাতকে উদ্ধার করতে গিয়ে গ্রামবাসীর সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ হয়েছে। ডাকাতির সময় ও গ্রামবাসী-পুলিশ সংঘর্ষে দুজন নিহত হয়েছেন। এ ছাড়াও এ ঘটনায় ১২ পুলিশসহ অর্ধশতাধিক ব্যক্তি আহত হন।

শনিবার ভোরে কোম্পানীগঞ্জের পূর্ব ইসলামপুর ইউনিয়নের মোস্তফা নগর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

গ্রামবাসী জানান, ওই গ্রামের বাসিন্দা জিলু মিয়া ডাকাতদের হাতে খুন হন। এসময় সোনাই মিয়া নামে এক ডাকাতকে আটক করে গ্রামবাসী। খবর পেয়ে বিক্ষুব্ধ জনতার হাত থেকে আটক ডাকাতকে ছাড়িয়ে আনতে ঘটনাস্থলে যায় পুলিশ। কিন্তু তারা সোনাই মিয়াকে পুলিশের হাতে তুলে না দিয়ে গণপিটুনি দেয়।

songghorso

তারা জানান, এ নিয়ে সকালে পুলিশের সঙ্গে দফায় দফায় সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে বিক্ষুব্ধ গ্রামবাসী। এসময় পুলিশের গুলিতে মফিজ মিয়া নামে এক ব্যক্তি নিহত হন। তিনি কোম্পানীগঞ্জের পূর্ব ইসলামপুর গ্রামের দক্ষিণ রাজনগরের বাসিন্দা। এছাড়াও পুলিশ-গ্রামবাসী সংঘর্ষে অন্তত ১২ পুলিশসহ প্রায় অর্ধশতাধিক ব্যক্তি আহত হয়েছেন।

কোম্পানীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আলতাফ হোসেন বলেন, সংঘর্ষের ঘটনায় পুলিশের ১২ সদস্য আহত হয়েছেন। এদের মধ্যে দু’জনের অবস্থা গুরুতর।