চাঁপাইনবাবগঞ্জের নাচোলে চোর সন্দেহে গণপিটুনিতে নিহত-১

জাকির হোসেন পিংকু, চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি: চাঁপাইনবাবগঞ্জের নাচোল উপজেলার সদর ইউনিয়নের আমজোয়ান গ্রামে চোর সন্দেহে গ্রামবাসীর পিটুনিতে গুমানী (৩০) নামে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। গুমানী জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার দাদনচক গ্রামের মৃত লালচানের ছেলে।

gono-pituni

আজ দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে গণপিটুনির ঘটনাটি ঘটার পর সকাল সোয়া দশটায় নাচোল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান গুমানী। এ ঘটনায় নাচোল থানায় একটি হত্যা মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে।

থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফাছির উদ্দিন জানান, সকাল সাতটায় আমজোয়ান গ্রামের চৌকিদার মারফত এক ব্যক্তিতে চোর সন্দেহে গ্রামবাসী মারপিটের পর গাছের সাথে বেঁধে রেখেছে মর্মে সংবাদ পায় পুলিশ। এরপর তাকে সংকটাপন্ন অবস্থায় উদ্ধার করে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হলে সেখানে সে মারা যায়।

চৌকিদারের বরাত দিয়ে ওসি জানান, রাতে গ্রামের একটি বাড়ীতে রাখা একটি ব্যাটারী চালিত অটোরিক্সার তালা ভাঙ্গার চেষ্টা করলে গুমানীকে আটকে মারধর করে গ্রামবাসী। পরে পাশের গ্রাম, নওগাঁ জেলার নিয়ামত উপজেলার চান্দুইল গ্রামের বাসিন্দা ও নিহত গুমানীর বর্গাচাষী তাসের আলী গনপিটুনীর শিকার গুমানীর পরিচয় সনাক্ত করেন।

পুলিশকে তিনি জানান, ওই এলাকায় নিহত গুমানীর কিছু জমি আছে। গুমানী কিছুটা মানসিক ভারসাম্যহীন ছিল বলেও পুলিশকে জানায় তাসের। এদিকে গুমানীর মৃত্যুর খবর পেয়ে বিকেলে তার মাসহ স্বজনেরা নাচোল পৌঁছেছেন। নিহতের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে।

প্রসঙ্গত, মাত্র ৯ দিন আগে ২৪ ফেব্রুয়ারী চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌর এলাকার মহাডাঙ্গা গ্রামে চোর সন্দেহে গ্রামবাসীর পিটুনীতে এক ব্যক্তি নিহত হলে সে ঘটনায় অজ্ঞাত পরিচয় ৭০/৮০ গ্রামবাসীর বিরুদ্ধে হত্যা মামলা করেন নিহতের ভাই।