পিএসএলের ফাইনাল খেলতে নিষিদ্ধ নগরে পৌছেছেন ‘সাহসী’ বিজয়

স্পোর্টস আপডেট ডেস্ক – পাকিস্তান সুপার লীগের (পিএসএল) দ্বিতীয় আসরের ফাইনাল অনুষ্ঠিত হবে লাহোরের গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে। আর এই মাঠেই ২০০৯ সালে লঙ্কান ক্রিকেটারদের ওপর সন্ত্রাসী হামলা হয়। এরপর থেকেই পাকিস্তানে সকল আন্তর্জাতিক ক্রিকেট নিষিদ্ধ।

এই কারণেই নিরাপত্তা শঙ্কায় পিএসএলের ফাইনাল থেকে নিজেদের নাম প্রত্যাহার করে নিয়েছেন বেশীরভাগ বিদেশী ক্রিকেট তারকারা। ফলে টুর্নামেন্টের বাইরে থাকা বেশ কয়েকজন বিদেশী ক্রিকেটারকে ফাইনালে খেলার আমন্ত্রণ জানানো হয়। এর মধ্যে আছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান এনামুল হক বিজয়ও।

বিজয়কে কিছুদিন আগেই ফাইনাল খেলার আমন্ত্রণ জানিয়েছিলো পিএসএলের দল কোয়েটা গ্ল্যাডিয়েটর্স। বিজয় জানিয়েছিলেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) এনওসি অর্থাৎ অনুমতিপত্র প্রদান করলে তবেই লাহোরে যাবেন তিনি।

অবশেষে সেই কাঙ্ক্ষিত এনওসি শুক্রবারই পেয়েছেন তিনি। ফলে পিএসএলের ফাইনালে খেলতে আর বাঁধা থাকছে না তাঁর। দুপুর ১.৩০ মিনিটে পাকিস্তান এয়ারলাইন্সে করে ঢাকা ছাড়েন তিনি।

bijoy-bd-criceter

৫ই মার্চের ফাইনালে কোয়েটা গ্ল্যাডিয়েটর্সের হয়ে মাঠে নামার কথা রয়েছে তাঁর। আর পেশওয়ার জালমির বিপক্ষে এই ফাইনাল ম্যাচটিকে নিজের জন্য অনেক বড় সুযোগ হিসেবে দেখছেন বিজয়। লাহোরের উদ্দেশ্যে দেশ ছাড়ার আগে তেমনটাই জানিয়েছেন তিনি।

বিজয় বলেন, ‘আমার জন্য এটা বড় একটা সুযোগ। পিএসএলের ফাইনাল ম্যাচটি যথেষ্ট আলোচনায় থাকবে। এটা সারা দুনিয়ায় সম্প্রচার হবে। আমি ভালো কিছু করতে পারলে সেটা সবার নজরে পড়বে। তাছাড়া অনেক খেলোয়াড়ই তো যাবেন। তাই আমি খুব একটা চিন্তা করছি না।’

কোয়েটা গ্ল্যাডিয়েটর্সে কিছুদিন আগে খেলে গেছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের তারকা অলরাউন্ডার মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে পূর্ণাঙ্গ সিরিজে অংশ নিতে টুর্নামেন্টের মাঝপথেই চলে যান তিনি।

আগামীকাল রাতে পাকিস্তান সুপার লিগের দ্বিতীয় আসরের ফাইনাল মাঠে গড়াবে। এবারই প্রথম ফাইনাল অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে লাহোরে। ফাইনালে লড়বে কোয়েটা গ্লাডিয়েটর্স ও পেশোয়ার জালমি। ফাইনালের আগে পাঁচজন বিদেশি খেলোয়াড়ের নাম ঘোষণা করেছে কোয়েটা।

তার মধ্যে রয়েছেন বাংলাদেশের এনামুল হক বিজয়, জিম্বাবুয়ের শন এরভিন ও এল্টন চিগম্বুরা, দক্ষিণ আফ্রিকার রায়াদ এমরিত ও মর্নে ফন উইক।

koyeta

ওমর গুলের পরিবর্তে কোয়েটা গ্লাডিয়েটর্স শিবিরে যোগ দিয়েছেন আইজাজ চিমা। ইনজুরিতে পরায় খেলতে পারছেন না গুল। ইতিমধ্যে কোয়েটা গ্লাডিয়েটর্সের খেলোয়াড়রা লাহোর পৌঁছেছে। সবার আগে পৌঁছান সরফরাহ আহমেদ, আসাদ শফিক, হাসান খান, নূর আলি ও মীর হামযা।