ট্রাম্পের করা অভিযোগের উপযুক্ত জবাব দিলেন ওবামা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক – টেলিফোনে আড়ি পাতার বিষয়ে বর্তমান মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের করা অভিযোগের জবাব দিয়েছেন সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা। ট্রাম্পের অভিযোগ নাকচ করেছেন ওবামা। তার পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, এই অভিযোগ পুরোপুরি মিথ্যা।

মুখপাত্র কেভিন লুইসের মাধ্যমে দেওয়া জবাবে ওবামা বলেছেন, নির্বাচনী প্রচার-প্রক্রিয়ার সময় ট্রাম্পের টেলিফোনে আড়ি পাতা হয়নি। হোয়াইট হাউস থেকে কোনো মার্কিন নাগরিকের টেলিফোনে আড়ি পাতার জন্য কখনো কোনো নির্দেশ দেওয়া হয়নি।

নিজের শাসনামলে বিচার বিভাগের কোনো তদন্তকাজে প্রেসিডেন্ট বা হোয়াইট হাউস থেকে কখনো কোনো হস্তক্ষেপ করা হয়নি বলেও ওবামার পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে।

গতকাল শনিবার বিকেলে ওবামার পক্ষ থেকে দেওয়া এক বিবৃতিতে বলা হয়, টেলিফোনে আড়ি পাতা নিয়ে ট্রাম্পের করা অভিযোগ নেহাতই সত্যের অপলাপ।

trump obama

এর আগে গতকাল সকালে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প অভিযোগ করেন, তিনি নির্বাচিত হওয়ার এক মাস আগে পূর্বসূরি ওবামা তার টেলিফোনে আড়ি পাতেন। তবে এই অভিযোগের সমর্থনে কোনো তথ্য-প্রমাণ তুলে ধরেননি ট্রাম্প।

ট্রাম্প ধারাবাহিক টুইটার পোস্টের একটিতে বলেন, ‘ভয়ংকর! মাত্র আবিষ্কার করলাম, প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে বিজয়ের কয়েক দিন আগে আমার ট্রাম্প টাওয়ারের ফোনে আড়ি পাতেন ওবামা। কিন্তু কিছুই পাওয়া যায়নি।’

আরেক টুইট বার্তায় ট্রাম্প বলেন, ‘কতটা নিচু হলে ওবামা অত্যন্ত পবিত্র নির্বাচনী প্রক্রিয়ার সময় আমার টেলিফোনে আড়ি পাততে পারেন! এটা নিক্সন/ওয়াটারগেট কেলেঙ্কারির মতো ঘটনা।’

ওবামার বিরুদ্ধে ট্রাম্পের টেলিফোনে আড়ি পাতার অভিযোগ আনার পর খোদ রিপাবলিকান পার্টির পক্ষ থেকে বড় ধরনের প্রতিক্রিয়া দেখানো হয়েছে।

রিপাবলিকান আইনপ্রণেতারা ট্রাম্পের কাছে তার করা অভিযোগের পক্ষে তথ্য-প্রমাণ উপস্থাপনের আহ্বান জানিয়েছেন।

রিপাবলিকান সিনেটর লিন্ডসি গ্রাহাম বলেছেন, অভিযোগ সত্য হলে তা হবে আমেরিকার ইতিহাসে ওয়াটারগেটের পর সবচেয়ে বড় কেলেঙ্কারি।