আইএস সন্দেহে মালয়েশিয়ায় সাতজন গ্রেফতার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক – মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেটের (আইএস) সঙ্গে যোগাযোগ ও জঙ্গি হামলায় জড়িত সন্দেহে মালয়েশিয়ায় অন্তত ৭ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। রোববার মালয়েশিয়ার রয়্যাল পুলিশ বলছে, গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে জঙ্গি কার্যক্রমে জড়িত থাকার অভিযোগ রয়েছে।

এক বিবৃতিতে পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) খালিদ আবু বকর বলেছেন, ইসলামিক স্টেটের সঙ্গে যোগাযোগ থাকায় গত ২১ ফেব্রুয়ারি দুই সন্দেহভাজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। গ্রেফতারকৃত একজন ৪১ বছর বয়সী মালয়েশিয়ার নাগরিক ও অপরজন ইন্দোনেশিয়ার (২৮)। দু’জনই কারখানায় টেকনিশিয়ান হিসেবে কর্মরত ছিল। কুয়ালালামপুরের কিপং থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

সিরিয়ায় আইএসে যোগ দেয়ার আগে গাড়িবোঝাই বিস্ফোরকসহ মালয়েশিয়ায় বড় ধরনের বোমা হামলা চালানোর জন্য মোহাম্মদ ওয়ান্নাদি মোহাম্মদ জেদি নামে একজনের কাছে থেকে নির্দেশনা পেয়েছিলেন। রয়্যাল পুলিশের তদন্তে এ তথ্য উঠে এসেছে বলে বিবৃতিতে বলা হয়েছে।

সিরিয়ায় বসবাসকারী মালয়েশিয়ান নাগরিক মোহাম্মদ ওয়ান্নাদি গত বছর পুচংয়ের মোভিদা নাইটক্লাবে হামলার মূল পরিকল্পনাকারী বলে ধারণা দেশটির পুলিশের।

seven-arrested-in-malaysia

পুলিশের মহাপরিদর্শক খালিদ বলেন, সেলানগরের পেটালিং জয়া থেকে গত ২৩ ফেব্রুয়ারি পূর্ব এশীয় তৃতীয় সন্দেহভাজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। গ্রেফতারকৃত ব্যক্তি জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেটের পূর্ব এশিয়ার একজন সদস্য বলে সন্দেহ পুলিশের। মালয়েশিয়াকে ট্রানজিট এবং আশ্রয়ের স্থান হিসেবে ব্যবহার করতো সে।

এছাড়া গ্রেফতারকৃত অন্য চার সন্দেহভাজন ইয়েমেনের নাগরিক। গত ২৬ ফেব্রুয়ারি সেলানগরের সাইবারজায়া ও সার্দাং থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা ইয়েমেনের বিদ্রোহী গোষ্ঠীর সন্দেহভাজন সদস্য বলে জানিয়েছে পুলিশ। একই সঙ্গে তারা একটি সিন্ডিকেটের সদস্য এবং ভ্রমণের ভূয়া কাগজ-পত্র তৈরি করতো।