সিন্ধু অববাহিকায় বাঁধ নির্মাণ শুরু করেছে ভারত, কঠিন চাপে পড়ল পাকিস্তান!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক – সিন্ধু জল কমিশনের বার্ষিক বৈঠকের আগে পাকিস্তানকে প্রবল চাপে রাখল ভারত। সিন্ধু অববাহিকায় নিজের ভাগের পানি ব্যবহারে উঠেপড়ে লেগেছে নয়াদিল্লি। প্রায় ২২৮৫.৮১ কোটি টাকা খরচ করে সিন্ধু অববাহিকার উপর বাঁধ তৈরি করবে ভারত।

সংবাদমাধ্যম সূত্রে খবর, এবার ইরাবতী, বিপাশা ও শতদ্রু মতো উত্তরের নদীগুলির উপর বাঁধ নির্মাণের কাজ জোরকদমে শুরু হবে৷ শুক্রবার ভারতের পক্ষে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ শাহপুর কান্দি বাঁধ প্রকল্পে সবুজ সঙ্কেত মিলেছে৷ দুই রাজ্যই এই বিষয়ে চূড়ান্ত সম্মতি জানিয়েছে৷

পাঞ্জাবের গুরুদাসপুর জেলায় ৫৫.৫ মিটার উঁচু এই বাঁধ তৈরি হয়ে গেলে পাঞ্জাবের ৫০০০ হেক্টর এবং জম্মু ও কাশ্মীরের প্রায় ৩২,১৭৩ হেক্টর জমিতে সেচ ব্যবস্থায় জোয়ার আসবে বলে মনে করা হচ্ছে৷

badh-india

১৯৯৯ সালে এই চুক্তি স্বাক্ষরিত হলেও পাঞ্জাব এবং জম্মু ও কাশ্মীরের মতবিরোধে সেই কাজ এতদিন থমকে ছিল। কিন্তু লাহোর আসন্ন সিন্ধু জল কমিশনের বার্ষিক বৈঠকের আগে নয়াদিল্লির এই চাল ইসলামাবাদের রাতের ঘুম কেড়ে নিতে পারে বলে মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল। নৃশংস উরি হামলার পরও ভারত পাকিস্তানকে সিন্ধুর জল থেকে বঞ্চিত করেনি। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ইসলামাবাদকে সতর্ক করেন, ভারতের বিরুদ্ধে জঙ্গি কার্যকলাপে লাগাম না টানলে এবার পাকিস্তানকে হাতে নয়, ভাতে মারতে কার্পণ্য করবে না ভারত।

বিশেষজ্ঞরা মনে করেন, সিন্ধুর জল রুখে দেওয়া হলে শুকিয়ে মরুভূমি হয়ে যাবে পাকিস্তান৷ সিন্ধু জলবণ্টন চুক্তির মোতাবেক এবছরও জলের ভাগ নিয়ে দুই দেশের মধ্যে বৈঠক হবে৷ তবে সেই বৈঠকের ঠিক আগেই এরকম গুরুত্বপূর্ণ একটি প্রকল্পের কাজ শুরু হয়ে যাওয়ার পিছনে নয়াদিল্লির কূটনৈতিক চালই দেখছেন বিশেষজ্ঞরা৷