খুলনায় নানা কর্মসূ‌চির মধ্য দি‌য়ে জাতীয় পাট দিবস পা‌লিত

জিএস‌কে শান্ত, স্টাফ ক‌রেসপ‌ন্ডেন্ট: ‘সোনালী আঁশের সোনার দেশ পাট পণ্যের বাংলাদেশ’ প্র‌তিপা‌দ্যে সারা দেশের ন্যায় প্রথম বাবের মতো খুলনায় বি‌ভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে জাতীয় পাট দিবস-২০১৭ পা‌লিত হ‌য়ে‌ছে। কর্মসূচির মধ্যে ছিল র‌্যালি, আলোচনা সভা, পাটপণ্য প্রদর্শনী, মোবাইল কোর্ট পরিচালনা এবং চল‌চিত্র প্রদর্শনী।

pate-dibos

দিবস‌টি উপল‌ক্ষে আজ সোমবার (৬ মার্চ) সকা‌ল ৯টায় নগরীর শহীদ হা‌দিস পার্ক হ‌তে জেলা প্রশাস‌নের উদ্যো‌গে এক‌টি র‌্যালি বের করা হয়। র‌্যালিটি বি‌ভিন্ন সড়ক ঘু‌রে জেলা প্রশাসকের কার্যাল‌য়ে শেষ হয়। প‌রে জেলা প্রশাস‌নের স‌ম্মেলন ক‌ক্ষে জেলা প্রশাসন ও পাট অধিদপ্তরের যৌথ আয়োজ‌নে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা প্রশাসক নাজমুল আহসান।

সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় জেলা প্রশাসক বলেন, পাটের সোনালী দিন ফিরিয়ে আনতে বর্তমান সরকার বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। গবেষনায় পাটের জন্ম রহস্য উদ্ভাবন একটি বড় সাফল্য। ফলে পাট শিল্পে অপার সম্ভাবনার দ্বার উন্মোচিত হয়েছে। তিনি বলেন, বাংলাদেশের সোনালী আঁশ ছিল পাট। পাটের সুদিন ফিরিয়ে আনতে পাট পণ্যের ব্যবহার বহুবিধ করতে হবে। দেশের অভ্যান্ত‌রে পাটের ব্যবহার নিশ্চিত করে বিদেশে পাট পণ্য রপ্তানী বাড়াতে হবে। পাট শিল্পকে আধুনিকায়ন করে খুলনাকে পাটের নগরী হিসেবে গড়ে তুলতে হবে।

অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেনের সভাপতিত্বে সভায় বিশেষ অতিথির বক্তৃতা করেন বাংলাদেশ জুট মিলস খুলনাঞ্চলের সভাপতি শফিকুল ইসলাম, ক্রিসেন্ট জুট মিলের উপ-মহাব্যবস্থাপক আব্দুল কালাম হাজারী এবং বাংলাদেশ জুট মিলস এ্যাসোসিয়েশনের চেয়ারম্যান শেখ সৈয়দ আলী।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে কৃষি-সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মোঃ আব্দুল লতিফ, বাংলাদেশ জুট মিলস এ্যাসোসিয়েশনের সাবেক চেয়ারম্যান শরিফ মোহাম্মদ ফজলুর রহমান, জেলা তথ্য অফিসের উপ-পরিচালক ম. জাভেদ ইকবাল, পাট অধিদপ্তরের সহকারি পরিচালক মোঃ আব্দুল করিমসহ সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারী, পাট ব্যবসায়ীরা, শিক্ষক-শিক্ষার্থী, গণমাধ্যমকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।