ট্রাম্পের ফোনে ওবামার আড়িপাতার অভিযোগ নাকচ করে দিয়েছে এফবিআই

আন্তর্জাতিক ডেস্ক – নব নিযুক্ত মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের ফোনে আড়ি পাতার ব্যবস্থা করেছিলেন তারই পূর্বসূরি বারাক ওবামা, ট্রাম্পের এমন অভিযোগকে নাকচ করে দিয়েছেন দেশটির এফবিআই প্রধান জেমস কোমি।

গত বছরের নির্বাচন প্রচারাভিযানে সাবেক প্রেসিডেন্ট ওবামা একটি ‘ওয়েরট্যাপ’ আদেশ দিয়েছিলেন বলে দেশটির বিচার বিভাগের এক প্রশ্নের জবাবে একথা বলেন কোমি।

নিউইয়র্ক টাইমস ও এনবিসি নিউজ জানাচ্ছে, এরপর জেমস কোমিকে এ ব্যাপারে স্পষ্ট জবাব দিতে বলা হয়, না হলে এফবিআই নিজেই আইন ভাঙ্গছে বলে মনে করা হচ্ছে।

তবে ফোনে আড়ি পাতার মতো আদেশ দেন নি ওবামা, কোমির এমন আবেদনের প্রেক্ষিতে এখনো কোন বিবৃতি বা দ্রুত সিদ্ধান্তে আসেনি মার্কিন বিচার বিভাগ।

এরআগে গত শনিবার একটি টুইটে দেয়া পোস্টে ট্রাম্প বলেন, ভয়াবহ! মাত্রই জানলাম ওবামা বিজয়ের (নির্বাচন) এক মাস আগে ট্রাম্প টাওয়ারে আড়িপাতার ব্যবস্থা করেছিল ওবামা। কিছুই পাওয়া যায়নি! এটা ম্যাকার্থিবাদ।

donald-trump-and-barack-obamaতিনি আরো বলেন, একটি আদালত ট্রাম্প টাওয়ারে আড়িপাতার বিষয়ে নির্দেশনা চাইলে সেখান থেকে এই অনুরোধ প্রত্যাখ্যান করা হয়। ওবামা তার দাবির পক্ষে কোনো প্রমাণ হাজির করেননি এবং এটাও পরিষ্কার করেননি কোন আদালতের কথা তিনি বলছেন। উল্লেখ্য, ১৯৫০ সালে তৎকালীন সিনেটর জন ম্যাকার্থি মার্কিন কমিউনিস্ট ও তাদের মিত্রদের নিপীড়নের ঘটনাকে ইতিহাসে ম্যাকার্থিজম নামে অভিহিত করা হয়।

ট্রাম্প টাওয়ারে আড়িপাতার ঘটনাকে ১৯৭২ সালে মার্কিন প্রেসিডেন্ট রিচার্ড নিক্সনের ডেমোক্রেট নির্বাচনী প্রচারণা দলের শিবিরে আড়িপাতার ঘটনার জন্য কুখ্যাত ‘ওয়াটারগেট কেলেঙ্কারি’র সঙ্গে তুলনা করেন ট্রাম্প। ওই ঘটনার জের ধরে পরবর্তীতে নিক্সন পদত্যাগ করতে বাধ্য হন।

গণমাধ্যম জানিয়েছে, এফবিআই গতমাসে ট্রাম্পের নির্বাচনী প্রচারণা দলের কয়েকজনের রাশিয়ান সংশ্লিষ্টতা প্রমাণের জন্য আড়িপাতার অনুমতি চেয়েছিল আদালতের কাছে। সেই ওয়ারেন্ট অক্টোবরে বাতিল করা হলেও পরবর্তীতে অনুমোদন দেয়া হয়। এই ঘটনার কোনো আনুষ্ঠানিক বক্তব্য প্রদান করা হয়নি। বর্তমানে ট্রাম্প দলের রাশিয়ান সংশ্লিষ্টতার বিষয়ে তদন্ত হচ্ছে।