‘কিছুদিনের মধ্যেই নতুন জোটের ঘোষণা দেব’

সময়ের কণ্ঠস্বর – জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেছেন, দেশের মানুষের কল্যাণের জন্য রাজনীতি, কিন্তু সেই রাজনীতি এখন আর নেই। জনগণের স্বার্থে নয়, নিজেদের স্বার্থে রাজনৈতিক দলগুলো রাজনীতি করছে। একজন আরেকজনকে ঘায়েলের রাজনীতি করছে। মূলত দেশে সত্যিকার রাজনীতি নেই।

আজ সোমবার দুপুরে রাজধানীতে বনানীর নিজ কার্যালয়ে এক যোগদান অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন তিনি। এর আগে টাঙ্গাইল মধুপুরের ব্যবসায়ী ও বিএনপি নেতা নুরুল ইসলাম রাজ ও আহসান খাঁন রাজের নেতৃত্বে শতাধিক নেতা-কর্মী এরশাদের হাতে ফুলের তোড়া দিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে জাতীয় পার্টিতে যোগ দেন।

যোগ দেওয়া নেতাদের স্বাগত জানিয়ে এরশাদ বলেন, দেশের জনগণ ও রাজনীতিকরা আওয়ামী লীগ-বিএনপির প্রতি আস্থা রাখতে পারছে না। তাই তারা জাতীয় পার্টিতে যোগ দিচ্ছেন। কারণ জাতীয় পার্টি জনগণ ও দেশের জন্য রাজনীতি করে।

‘জাতীয় পার্টি গণমানুষের দল বলেই অনেক রাজনৈতিক দল জাতীয় পার্টির সঙ্গে জোট করার আগ্রহ প্রকাশ করেছে। কিছুদিনের মধ্যেই জাতীয় পার্টির নেতৃত্বে নতুন জোটের ঘোষণা দেব’- বলেন এরশাদ।

তিনি বলেন, দেশে সবখানেই বিশৃঙ্খলা। পরিবহন ধর্মঘট যাওয়ার পর এখন চলছে ইন্টার্ন ডাক্তারদের ধর্মঘট। এভাবে দেশ চলতে পারে না।

ershad

নেতা-কর্মীদের উদ্দেশ্যে এরশাদ বলেন, ‘নির্বাচনের জন্য প্রস্তুতি নাও। দলকে শক্তিশালী করো। তবে আমরা ক্ষমতায় গিয়ে মানুষের প্রত্যাশা পূরণ করতে পারবো।’

টাঙ্গাইল জেলা জাপার সভাপতি এম এ কাসেমের সভাপতিত্বে যোগদান অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন দলের কো-চেয়ারম্যান জি এম কাদের, পার্টির মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার, প্রেসিডিয়াম সদস্য সাইদুর রহমান টেপা, এস এম ফয়সল চিশতি, মীর আব্দুস সবুর আসুদ, মেজর অবসরপ্রাপ্ত খালেদ আখতার, জেলা জাপার সাধারণ সম্পাদক মোজাম্মেল হক প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন দলের ভাইস চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম নুরু, জহিরুল ইসলাম জহির, সাংগঠনিক সম্পাদক আমির উদ্দিন আহমেদ ডালু, সালাউদ্দিন মুক্তি, কেন্দ্রীয় নেতা সুলতান মাহমুদ, বেলাল হোসেন, হুমায়ুন খান, সুমন আশরাফ, মিজানুর রহমান মিরু, নাজিম চিশতি প্রমুখ।