রৌমারীতে ভিজিডি কার্ডের প্রলোভন দিয়ে প্রতিবন্ধি গৃহবধুকে ধর্ষণ

bfr


ফয়সাল শামীম,নিজস্ব প্রতিবেদক,কুড়িগ্রামঃ

কুড়িগ্রামের রৌমারীতে এক মেম্বার ভিজিডি কার্ড দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে এক প্রতিবন্ধি গৃহবধুকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনাটি রৌমারী উপজেলার দাঁতভাঙ্গা ইউনিয়নের প্রত্যন্ত অঞ্চল ইটালুকান্দা গ্রামে। এ ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চলের সৃষ্টি হয়েছে।

এলাকাবাসি জানায়, দাঁতভাঙ্গা ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য আঃ রাজ্জাক গত ৩ মার্চ সকাল ১০টার দিকে একই গ্রামের একপ্রতিবন্ধি গৃহবধুকে ভূট্টা ক্ষেতে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করে। এ সময় ঐ এলাকার বজলার রহমানের ছেলে আতোয়ার রহমান তাদের দেখে ফেললে ইউপি সদস্য দ্রুত সটকে পড়ে। পরে ঐ এলাকার গ্রাম্য মাতববরদের বিষয়টি আবগত করেন আতোয়ার রহমান। গ্রামের মাতববর এশাদুল হক বলেন, আতোয়ারের কাছে অভিযোগ পাওয়ার পর রাজ্জাকের বাড়িতে গিয়ে জানতে পারি ঘটনার পরপরেই সে আত্মগোপনে চলে গেছে।

শারীরিক প্রতিবন্ধি গৃহবধু আঞ্জুআরা (২৫) বলেন, মেম্বার রাজ্জাক অনেক দিন থেকে তাকে ভিজিডির তালিকায় নাম দেবে বলে আমাকে কুপ্রস্তাব দিয়ে আসছিল তাতে আমি রাজি হইনি। ঘটনার দিন আমি বাবার বাড়ি থেকে আসার সময় চরে ভুট্টা ক্ষেতে নিয়ে যা করার তাই করেছে। আমি এর বিচার চাই।

অভিযুক্ত ইউপি সদস্য আঃ রাজ্জাকের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, এধরনের কোন ঘটনাই ঘটেনি। ঘটনার দিন আমি কুড়িগ্রামে ছিলাম রোববার বাড়িতে এসে এসব শুনছি। নিবার্চন করে মেম্বার হয়েছি আমার অনেক শত্রু আছে তারাই আমার নামে এই বদনাম ছড়াচ্ছে। আমিও খুঁজছি এর মুল হোতা কে।  দাঁতভাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান শামছুল হক বলেন, ঘটনাটি লোকমুখে শুনেছি। তবে কেউ আমাকে অভিযোগ করেনি। অভিযোগ দিলে ব্যবস্তা নেয়া হবে।

এব্যাপারে রৌমারী থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ রুহানী পিপিএম জানান, এখনো এ বিষয়ে থানায় কোন অভিযোগ পাওয়া যায়নি। অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।