কাউখালীতে আওয়ামী লীগ কার্যালয়ের তালা ভেঙ্গে ৭ মার্চের কর্মসুচি পালন

সৈয়দ বশির আহম্মেদ, কাউখালী প্রতিনিধি: পিরোজপুরের কাউখালীতে আওয়ামী লীগ কার্যালয়ের তালা ভেঙ্গে ৭ মার্চের কর্মসুচি পালন করেছে নেতাকর্মীরা। এ জন্য উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন তালুকদারকেই দায়ী করলেন নেতৃবৃন্দ।

7-mar

প্রতিবছর উপজেলা আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনের পক্ষ থেকে ঐতিহাসিক ৭ মার্চে নানা কর্মসুচি পালন করে। প্রথা অনুযায়ী  আজ মঙ্গলবার সকালেই উপজেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র নেতৃবৃন্দসহ যুবলীগ, ছাত্রলীগ, শ্রমিক লীগ, কৃষক লীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতা কর্মীরা দলীয় কার্যালয়ের সামনে হাজির হলে কার্যালয় তালা বন্ধ দেখতে পায়।

এ সময়  উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সুনীল কুন্ডু উপজেলা সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন তালুকদারের কাছে ফোন দিলে তার ফোন বন্ধ পান। বার বার ফোন দিয়ে যখন সম্পাদকের ফোন বন্ধ পান তখন নেতা কর্মীরা তালা ভেঙ্গে কার্যালয় খুলেন। কিছু সময় পর বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সাবেক সম্পাদক মোঃ ইসাহাক আলী খান পান্না দলীয় কার্যালয়ে আসেন এবং নেতা কর্মীদের নিয়ে মুজিব চত্তরে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানিয়ে দিনের কর্মসুচি শুরু করেন।

এরপর উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি শাহ মোঃ কাইউমের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় ইসাহাক আলী খান পান্না ছাড়াও বক্তৃতা করেন যুগ্ম সম্পাদক মোঃ মনিরুজ্জামান পল্টন, সাংগঠনিক সম্পাদক সুনিল কুন্ডু, মাহামুদ খান খোকন, কোষাধ্যক্ষ সজল দত্ত, স্বেচ্ছা সেবক লীগের সভাপতি মোঃ আমিনুর রশিদ মিল্টন, সম্পাদক মিন্টু তালুকদার, যুবলীগের সভাপতি অলক কর্মকার, সম্পাদক নাসির তালুকদার, কৃষক লীগের সভাপতি ইউনুস খান, ছাত্রলীগের সভাপতি মৃদুল আহমেদ সুমন প্রমূখ।

অফিস না খোলা সম্পর্কে সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন তালুকদারের সঙ্গে ফোনে কথা বললে, তিনি অসুস্থ দাবী করে বলেন তার  কাছে কেউ ফোন দেয়নি। তিনি আরও বলেন, দলীয় কোন্দলের কারনে তারা এসব কথা বলছেন।