পিএসএলে খেলতে গিয়ে সম্মানী ছাড়াই দেশে ফিরলেন বিজয়

স্পোর্টস আপডেট ডেস্ক – পাকিস্তান সুপার লিগ (পিএসএল) এর ফাইনালে খেলে দেশে ফিরেছেন জাতীয় দলের সাবেক ওপেনার এনামুল হক বিজয়। তবে দেশে ফিরেছেন খালি হাতেই অর্থাৎ বিনা বেতনে। ঐতিহাসিক ফাইনালে কোয়েটা গ্লাডিয়েটরসের হয়ে খেলেন এনামুল। নিরাপত্তা ঝুঁকির কারনে ফাইনালে পুরোপুরি নতুন চার বিদেশি ক্রিকেটার নিয়ে খেলতে নামে কোয়েটা। বাংলাদেশের এনামুল হক বিজয়ের সঙ্গে কোয়েটার হয়ে খেলতে সম্মত হোন দক্ষিণ আফ্রিকার ভ্যান উইক, জিম্বাবুয়ের এরভাইন ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের এমরিট।

কিন্তু ফাইনালে ব্যাট হাতে প্রত্যাশিত প্রদর্শন দেখাতে সক্ষম হননি এই টাইগার ব্যাটসম্যান। তিন নম্বরে ব্যাট করতে নেমে ৯ বল মোকাবেলা করে মাত্র তিন রান করেন বিজয়। এদিকে তার দলও টানা দ্বিতীয় বারের মতো ফাইনালে পরাজিত হল। সম্প্রতি ফাইনাল খেলে দেশে ফিরেছেন এনামুল হক। তবে জানিয়েছেন আসর শেষ হলেও এখনও কোন সম্মানী পাননি পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড কিংবা কোয়েটার কাছে থেকে।

তিনি বলেন, ‘আমি টাকা পাইনি এখনও। আমি সিলভার ক্যাটাগরিতে ছিলাম, যেখানে বেতন হচ্ছে ১০০০০ ডলার। তবে আমার ম্যানেজার জানিয়েছে শীঘ্রই সেটি পেয়ে যাওয়ার কথা। আমার মনে হয় আর কিছুদিন পাকিস্তানে থাকতে পারলে হয়তো নিয়েই ফিরতে পারতাম। তবে আশা করছি দ্রুতই পেয়ে যাবো টাকাটা। সম্পূর্ণটা না পেলেও অন্তত ৮০০০ ডলার পাওয়ার কথা আমার।’

bijoy

এর আগে অনুমতির (অনাপত্তিপত্র) জন্য বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) দারস্থ হন তিনি। এনামুলের অতি আগ্রহেই তাকে ফাইনাল খেলতে অনাপত্তিপত্র দিয়েছে বিসিবি। ওয়েস্ট ইন্ডিজের ড্যারেন স্যামি, ইংল্যান্ডের ক্রিস জর্ডান ফাইনাল খেলতে যাচ্ছেন পাকিস্তানে। বিসিবিও তাই আপত্তি জানায়নি। তবে পাকিস্তানে যাওয়ার জন্য তাকে অনাপত্তিপত্র দেয়ার আগে অনেক আলোচনা হয়েছে বোর্ডে। বোর্ড সভাপতি পর্যন্তও গড়িয়েছে ব্যাপারটা।

উল্লেখ্য, পিএসএলের সবগুলো ম্যাচ সংযুক্ত আরব আমিরাতে হলেও এবার ফাইনালটা লাহোরে আয়োজনের কঠিন এক সিদ্ধান্ত নিয়েছিল পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। জয়-পরাজয় ছাপিয়ে বড় হয়ে উঠেছে পাকিস্তানে ক্রিকেট ফেরার খবরটিই।

লাহোরে ঘরের মাঠে ফাইনালটি দেখতে মাঠে উপস্থিত হয়েছিলেন প্রায় ২২ হাজার দর্শক। নিরাপত্তাব্যবস্থাও ছিল প্রশংসা করার মতো। সবমিলিয়ে পাকিস্তানে ক্রিকেটেরই জয় হয়েছে, মনে করছেন অনেকেই।