ছাত্রীর বোরকা খুলে শ্লীলতাহানি, মামলা দিতে এসে সেই যুবক নিজেই কারাগারে

অমিত বনিক অপু, ঝালকাঠি প্রতিনিধি: ঝালকাঠির নলছিটিতে এক স্কুল ছাত্রীর শ্লীলতাহানীর ভিডিও প্রচার হয় সামাজিক মাধ্যম ফেসবুকে। ফেসবুকের সূত্র ধরে ঘটনাটি স্থানীয় কয়েকটি গণমাধ্যমে সংবাদ প্রচার হয়।

mamla

এ ঘটনায় অভিযুক্ত ব্যক্তি সংবাদ প্রকাশ করায় চার সংবাদিকের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা দিতে এসে নিজেই কারাগারে গেছেন। মঙ্গলবার আদালতের বিচারক বাদী হয়ে ভিডিওতে দেখা অভিযুক্ত যুবকের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে কারাগারে পাঠায়।

এ বছরের জানুয়ারি মাসে ঝালকাঠির নলছিটি উপজেলার নান্দিকাঠি এলাকায় বোরখা পরিহিত এক স্কুল ছাত্রীকে পথরোধ করে ভয়ভীতি দেখিয়ে তার বোরখা খুলে শ্লীলতাহানী করে কয়েক যুবক। আর সম্প্রতি এ ঘটনার ভিডিও ফুটেজ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পরে।

ভিডিওটি স্থানীয় সংবাদ কর্মীদের নজরে এলে ঘটনার হোতা নলছিটি উপজেলার নান্দিকাঠী গ্রামের আব্দুল জলিল চৌধুরীর ছেলে রেজাউল করিম নাম উল্লেখ করে কয়েকটি গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হয়।

এ ঘটনায় অভিযুক্ত যুবক মঙ্গলবার দুপুরের ঝালকাঠি সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে ৪ সাংবাদিদের বিরুদ্ধে মামলা করতে আসে।

ঝালকাঠি জেলা জজ আদালতের আইনজীবী মোজাম্মেল হোসেন সময়ের কণ্ঠস্বরকে জানান, আদালত বিষয়টি সম্পর্কে আগেই অবগত থাকায় স্বপ্রণোদিত হয়ে ওই যুবকের বিরুদ্ধে ১৯০ (১) (সি) ধারায় দন্ডবিধির ২৯৫এ/৩৫৪/৫০৬/৫০৯ ধারায় অপরাধ আমলে নিয়ে বিচারক এইচ এম কবির হোসেন বাদী হয়ে মামলা দায়ের করে রেজাউলকে কারাগারে পাঠায়।