নির্বাচন কমিশনের প্রতি আস্থার ক্ষেত্র তৈরি করবে তিন নির্বাচন: সিইসি

সময়ের কণ্ঠস্বর- গাইবান্ধা এবং সুনামগঞ্জে দুটি সংসদীয় আসনের উপনির্বাচন এবং কুমিল্লা সিটি করপোরেশন নির্বাচন বর্তমান নির্বাচন কমিশনের প্রতি আস্থার ক্ষেত্রে তৈরি করবে বলে জানিয়েছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নুরুল হুদা।

বৃহস্পতিবার দুপুরে আগারগাঁওয়ে নির্বাচন কমিশনের সম্মেলন কক্ষে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর বৈঠক শেষে সাংবাদিকদেরকে এ কথা বলেন সিইসি।

image-23352গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য সৈয়দ মঞ্জুরুল ইসলাম লিটন হত্যায় শূন্য হওয়া আসনটিতে ভোট হবে আগামী ২২ মার্চ। সেখানে আওয়ামী লীগের প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী জাতীয় পার্টি। আর প্রয়াত নেতা সুরঞ্জিত সেনগুপ্তের মৃত্যুতে ফাঁকা হওয়ায় সুনামগঞ্জের দিরাই ও শাল্লা উপজেলা নিয়ে গঠিত সংসদীয় আসনে ভোট হবে ৩০ মার্চ। সেখানে এখনও প্রার্থিতা চূড়ান্ত হয়নি। একই দিনে ভোট হবে কুমিল্লা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে।

সিইসি বলেন, ‘আজকের বৈঠকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী থেকে আমাদের সম্পূর্ণ সহযোগিতা করবে বলে জানিয়েছেন। যারা এখানে কর্মকর্তারা এসেছেন তারা বলেছেন এই নির্বাচন কমিশনের উপরে যেনো আস্থার একটা ক্ষেত্র তৈরি হয় তা এই নির্বাচন থেকে বেরিয়ে আসবে।’

সিইসি বলেন, ‘আমাদের দেশে একসঙ্গে তিনশ আসনের নির্বাচনও সুষ্ঠু হওয়ার নজির রয়েছে। তাই দুই-তিনটি এলাকায় নির্বাচনে আশঙ্কার কিছু নেই। ভোটাররা যাতে নির্বঘ্নে ভোটকেন্দ্রে গিয়ে ভোট দিতে পারে, ভোট দিয়ে নিরাপদে বাড়ি যেতে পারে এবং বাড়িতে গিয়ে নিরাপদে থাকতে পারেন বৈঠকে এ বিষয়ে কথা হয়েছে।’

নুরুল হুদা বলেন, ‘ভোটে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীসহ যারা দায়িত্ব পালন করবেন, তারা কোনো অনিয়ম করবেন না। আর করলে আইন অনুযায়ী তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘নির্বাচনে আপাতত সেনাবাহিনী মোতায়েনের কোনো সিদ্ধান্ত নেই। তবে তারা সব সময় প্রস্তুত থাকবেন। প্রয়োজন হলে তাদেরকে তাৎক্ষণিক নামানো হবে।’