মর্মান্তিক দৃশ্য ! প্রকাশ্য দিবালোকে রূপান্তরকামী নারীকে নৃশংসভাবে পিটিয়ে হত্যা (ভিডিও)

আন্তর্জাতিক ডেস্ক – ব্রাজিলে দুর্বৃত্তদের এলোপাতারি পিটুনিতে প্রাণ হারালেন মধ্যবয়সী রূপান্তরকামী এক নারী। সাহায্যের জন্য কেউ এগিয়ে আসেনি বরং উল্টো এই নৃশসংশতা দেখে উপহাস ও উচ্ছ্বাসে ফেটে পড়লেন প্রতিবেশীরা।

ব্রাজিলের সিয়ারা জেলার ফোরতালেজা শহরের বাসিন্দা দান্দারা দোস সান্তোসকে (৪২) বাড়ি থেকে টেনে হিচড়ে বের করে রাস্তায় ফেলে পিটিয়ে মারেন সন্ত্রাসীরা।

সেই মর্মান্তিক দৃশ্য বর্তমানে সোশ্যাল মিডিয়ায় সমালোচনার ঝড় তুলেছে।

ফুটেজে দেখা যায়, আক্রমণকারীদের কাছে বার বার প্রাণভিক্ষা চাইছেন নিগৃহীতা। কিন্তু তার অনুরোধে কান দেয়নি কেউ। মার খেয়ে লুটিয়ে পড়া রক্তাক্ত দান্দারা যখন কোনও রকমে উঠে বসার চেষ্টা করছেন, ঠিক সেই সময় তাকে ঠেলাগাড়িতে তুলে দেয় দুষ্কৃতিরা। তার পরে তাকে নিয়ে যাওয়া হয় বাড়ির পেছনের নির্জন গলিতে। সেখানে লম্বা কাঠ দিয়ে ফের পিটিয়ে তাকে খুন করা হয়।

maxresdefault

আশ্চর্য এই যে, দান্দারাকে মারধর করার সময় কেউ বাধা দেয়নি। তাকে সাহায্য না করে উল্টে হামলাকারীদের আরও অত্যাচার করার উস্কানি দেন প্রতিবেশীরা। কুত্‍‌সিত টিপ্পনি করা হয় তার শরীর নিয়ে। এমনকি যিনি মোবাইল ক্যামেরায় এই মর্মান্তিক দৃশ্য রেকর্ড করছিলেন, তাকেও হাসতে হাসতে বলতে শোনা যায়, ‘ওরা বেটাকে মেরেই ফেলবে…।’ শেষ পর্যন্ত সেই আশঙ্কা সত্যি হয়েছে।

তদন্তে নেমে গত শুক্রবার দান্দারার মৃত্যুর নির্মম ভিডিওটি প্রকাশ করে পুলিশ। ফুটেজ পাঠিয়ে দেওয়া হয় দু’টি এলজিবিটি সংগঠনে। এর পরেই দুষ্কৃতিদের সম্পর্কে তথ্য মিলতে শুরু করে।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুণ

পুলিশ জানিয়েছে, ‘ঘটনায় জড়িত ৬ জনকে চিহ্নিত করা গিয়েছে। আমরা এমন দুইজনের বাড়িতে হানা দিয়েছিলাম। কিন্তু পুলিশ পৌঁছানোর আগেই পালিয়ে যায় দুষ্কৃতি। অনুসন্ধান চলছে। অপরাধীরা কেউ রেহাই পাবে না।’

উল্লেখ্য, সম্প্রতি ব্রাজিলের রূপান্তরকামী ও তৃতীয় লিঙ্গের নাগরিকদের বিরুদ্ধে হিংসাত্মক ঘটনা বাড়ছে। গত ফেব্রুয়ারি মাসে দান্নাদা-সহ মোট ৫ জনকে খুন করা হয়েছে।