কালিয়াকৈরে নারী নির্যাতন মামলায় যুবলীগ নেতা গ্রেফতার

Atok_01_3


আলমগীর হোসেন, কালিয়াকৈর (গাজীপুর) প্রতিনিধিঃ

গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার মৌচাক ইউনিয়নের মাঝুখান এলাকা থেকে নারী নির্যাতনের অভিযোগে বুধবার দিবাগত (০৮মার্চ) রাতে ফিরোজ আহম্মেদ লিটন সরকার (৪৫) নামে বহিস্কৃত যুবলীগ নেতাকে গ্রেফতার করেছে মৌচাক ফাড়ি পুলিশ। গ্রেফতারকৃত লিটন উপজেলার মাঝুখান গ্রামের করিম সরকারের ছেলে। এ ঘটনায় মাঝুখান এলাকার আবুল হাসেমের মেয়ে শারমিন শাকিলা বাদী হয়ে কালিয়াকৈর থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ সুত্রে জানা যায়, মৌচাক ইউনিয়ন যুবলীগের সাবেক যুগ্ম আহবায়ক লিটন দীর্ঘ দিন ধরে নারী কেলেংকারী ও মাদক মাদক ব্যবসায় জড়িত। বুধবার রাতে শারমিন শাকিলা (২২) নামে এক নারীর সাথে অবৈধ কাজে লিপ্ত থাকার অভিযোগে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। পরে বৃহস্পতিবার দুপুরে গাজীপুর আদালতের মাধ্যমে তাকে জেল হাজতে প্রেরন করে।

কালিয়াকৈর থানাধীন মৌচাক পুলিশ ফাড়ির ইনচার্জ (এসআই) সাইফুল আলম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, তার নামে নারী নির্যাতন মামলা হয়েছে। তাকে গাজীপুর জেল হাজতে প্রেরন করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, ২০১৪ইং সালে কালিয়াকৈর উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক হিরু মিয়া, যুগ্ম আহবায়ক রেজাউল করিম, আবুল হাসেম ও কে এম ইব্রাহিম খালেদ এর স্বাক্ষরে গত ২৩-০৭-২০১৪ইং তারিখে তাকে যুবলীগের সকল পদ ও প্রাথমিক সদস্য পদ থেকে বহিস্কার করে। সেখানে লেখা হয় মৌচাক ইউনিয়ন যুবলীগের যগ্মআহবায়ক থাকাকালিন তার বিরুদ্ধে নারী কেলেংকারী মাদক ব্যবসায়ী ও মাদক সেবনকারী উল্লেখ করা হয়। উপজেলা যুবলীগ ঘটনার সত্যতা পাওয়ায় যুবলীগের ভাবমূতি ক্ষুন্ন হওয়ায় তাকে দল থেকে বহিস্কার করা হয়।