লালমনিরহাটে ৭ কেজি গাঁজাসহ একই পরিবারের মা, ছেলে ও মেয়ে আটক

মোঃ ইউনুস আলী, লালমনিরহাট প্রতিনিধি, সময়ের কণ্ঠস্বর : লালমনিরহাটের সদর উপজেলার একই পরিবারের মা জাহানারা বেগম সুখী (৪৫), মেয়ে রিয়া বেগম (২২) ও ছেলে রনি মিয়া (১৫) নামের তিনজনকে ৭ কেজি গাঁজাসহ আটক করেছে গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। বৃহস্পতিবার বিকেলে ঐ উপজেলার মোগলহাট ইউনিয়নের মেঘারাম বাজার থেকে তাদের আটক করা হয়।

আটকরা হলো বগুড়া জেলা গাবতলী উপজেলার ফকিরপাড়া শালুকগাড়ি এলাকার মৃত বাদশা মিয়ার স্ত্রী-মেয়ে ও ছেলে।

lal

লালমিনহাট জেলা ডিবির উপ-পরিদর্শক (এসআই) শাহীন আলী জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সদর উপজেলার মোগলহাট ইউনিয়নের মেঘারাম বাজারে দুইটি ব্যাগসহ তাদের তিনজনকে আটক করা হয়। পরে তাদের ব্যাগ তল্লাশি করে সাত কেজি গাঁজা উদ্ধার করা হয়।

তারা দীর্ঘদিন ধরে লালমনিরহাটে বেড়াতে আসার কথা বলে গাঁজার ব্যবসা করে আসছিল বলে এলাকাবাসী জানান। এ ঘটনায় লালমনিরহাট সদর থানায় মাদকদ্রব্য আইনে একটি মামলা হয়েছে।

লালমনিরহাট পুলিশ সুপার (এসপি) এসএম রশিদুল হক জানান, মাদকমুক্ত জিরো টলারেন্সে লালমনিরহাট জেলা গড়তে পুলিশ প্রশাসনের এ অভিযান অব্যাহত থাকবে।

লালমনিরহাটে অজ্ঞাত ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধার

মোঃ ইউনুস আলী, লালমনিরহাট প্রতিনিধি: লামনিরহাট সদর উপজেলায় ভুট্টা ক্ষেত থেকে অজ্ঞাত ব্যক্তির (৫০) অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার দুপুরে সদর উপজেলার মহেন্দ্রনগর ইউনিয়নের তেলিপাড়ার একটি ভুট্টা ক্ষেত থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।
পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, তেলিপাড়া এলাকার রেল লাইনের পাশ্বে একটি ভুট্টা ক্ষেতের ভিতরে ঘাস কাটতে গেলে স্থানীয় এক কৃষক অর্ধগলিত এ মরদেহ দেখতে পান। এমন খবরে সদর থানা পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে লালমনিরহাট সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।
লালমনিরহাট সদর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) রফিকুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, নিহতের পরিচয় সনাক্তসহ প্রকৃত ঘটনা উদঘাটনের চেষ্টা চলছে।