ধর্ষণ মামলায় জামিন পেয়েই ফের ধর্ষণের চেষ্টা!

নিউজ ডেস্ক সময়ের কণ্ঠস্বর :– ধর্ষণের মামলায় অভিযুক্ত হয়ে জেল খেটেছিল। তাতেও বদলায়নি। জামিনে মুক্তি পেয়েই ফের ধর্ষণ ও যৌন নিগ্রহের চেষ্টা করল সেই অপরাধী। শিবরাম রেড্ডি।পুলিশ জানাচ্ছে, মঙ্গলবার বেঙ্গালুরুর হল থানা এলাকায় মহিলাদের একটি হস্টেলে হানা দেয় শিবরাম। সেই সময় হস্টেলের ঘরে একা ছিলেন ওই মহিলা।

dorsok sibram

মহিলা পুলিশকে জানান, তাঁকে ছুরি দেখিয়ে প্রথমে ঘর লুঠপাট করে শিবরাম। তার পর ধর্ষণ করে ওই মহিলাকে। ওই ঘটনার তিন দিন পরে একই অভিযোগ জানান ওই থানা এলাকার আরও এক মহিলা। তিনিও হস্টেলে একাই থাকতেন।

থানার এক পুলিশ অফিসার হেমন্ত নিম্বালকর জানান, ওই দু’জন মহিলা একই লোকের কথা বলেছেন। ছবি দেখানোর পর দুই মহিলাই শিবরামকে সনাক্ত করেছেন। গত মঙ্গলবার মারাঠাহালি রোড এলাকায় পুলিশ শিবরামকে গ্রেফতার করতে গেলে পুলিশের সঙ্গে কিছু ক্ষণ খণ্ডযুদ্ধ হয় শিবরামের। ছুরির আঘাতে আহত হন তিন পুলিশ কর্মী। পায়ে গুরুতর চোট লাগে শিবরামেরও। সেই অবস্থাতেই পালিয়ে যায় শিবরাম। তাকে এখনও আটক করতে পারেনি পুলিশ।

অন্ধ্রপ্রদেশের চিত্তোর এলাকার আদি বাসিন্দা হলেও গত ১৫ বছর ধরে বেঙ্গালুরুতেই থাকত শিবরাম। কন্নড়, তেলুগু, হিন্দি, ইংরাজি চারটি ভাষায় নাগাড়ে কথা বলে যেতে পারে সে। ২০১৪ সালে একটি ধর্ষণের মামলায় দোষী সব্যস্ত হয়ে জেলে গিয়েছিল শিবরাম। যৌন নিগ্রহ, ধর্ষণ, ডাকাতির মতো মোট ১৬টি মামলা ঝুলছে শিবরামের নামে। সদ্যই জামিনে জেল থেকে ছাড়া পেয়েছিল শিবরাম।