তরুণীকে মাদক খাইয়ে যাদবপুরের পার্লারে ‘গণধর্ষণ’

আন্তর্জাতিক ডেস্ক- বিউটি পার্লারে ডেকে এনে মাদক খাইয়ে বছর একুশের এক তরুণীকে গণধর্ষণের অভিযোগ উঠল ভারতের পূর্ব যাদবপুরের মুকুন্দপুরে। সোমবার রাতের ওই ঘটনায় দুই অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ধর্ষণ, শ্লীলতাহানি, হুমকি ও মাদক খাইয়ে আচ্ছন্ন করার মামলা রুজু হয়েছে।

image_276005.13ভারতের আনন্দবাজারকে পুলিশ জানায়, বুধবার রাতে ওই তরুণী তাঁর এক বান্ধবীর সঙ্গে এসে রাজকুমার মণ্ডল ও অমল মণ্ডলের বিরুদ্ধে গণধর্ষণের অভিযোগ দায়ের করেন পূর্ব যাদবপুর থানায়।

তরুণীর দাবি, সোমবার রাত সাড়ে আটটায় রাজকুমার নামে ওই যুবক তাঁকে বাড়ির কাছেই একটি পার্লারে ডাকে ‘কাজের কথা’ বলার জন্য। রাজকুমার ওই পার্লারেরই কর্মী। সেখানেই বছর বাহান্নর কেয়ারটেকার অমল মণ্ডলের সহায়তায় রাজকুমার তাঁকে ধর্ষণ করে বলে অভিযোগ ওই তরুণীর।

পুলিশ সূত্রের খবর, গত বছরের শেষের দিকে ওই তরুণীও ওই পার্লারে কাজ শিখেছিলেন। তাই রাজকুমারের সঙ্গে তাঁর পরিচয় ছিল। তরুণীর অভিযোগ, তিনি সোমবার রাতে পার্লারে গিয়ে রাজকুমারের সঙ্গে দেখা করেন। তখন কেয়ারটেকার অমল মণ্ডল দু’জনের জন্য কিছু পানীয় এবং খাবার এনে দেয়। তা খেয়েই তরুণীর ঝিমুনি আসে এবং এর পরের কথা বিস্তারিত মনে নেই তাঁর। তরুণীর দাবি, জ্ঞান ফিরলে তিনি বুঝতে পারেন, তাঁকে ধর্ষণ করা হয়েছে। রাজকুমার তাঁকে হুমকি দিয়ে বলে, মুখ খুললে সে ধর্ষণের ছবি প্রকাশ করে দেবে।

বুধবার তরুণীর অভিযোগের ভিত্তিতে পার্লারের কেয়ারটেকার অমল মণ্ডলকে গ্রেফতার করে পুলিশ। বৃহস্পতিবার সকালে ধরা পড়ে রাজকুমার। তদন্তকারীরা জানিয়েছেন, আদতে পূর্ব মেদিনীপুরের খেজুরির বাসিন্দা রাজকুমার কসবায় থাকে। বেশ কিছু দিন ওই পার্লারে কাজ করছে সে।