‘সুষ্ঠু নির্বাচনের লক্ষ্যে আজ থেকেই লেভেল প্লেইং ফিল্ড দিতে হবে’

সময়ের কণ্ঠস্বর – বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ বলেছেন, নির্বাচনের এক মাস আগে নয়, সুষ্ঠু নির্বাচনের ব্যবস্থা করতে হলে আজ থেকেই লেভেল প্লেইং ফিল্ড দিতে হবে।

তিনি বলেন, নির্বাচন কমিশনের বড় দায়িত্ব হলো সকল রাজনৈতিক দলকে সমান সুযোগ দিয়ে সুষ্ঠু নির্বাচনের ব্যবস্থা করা। আর এ জন্য আজ থেকেই সরকারি দলের মতো সব রাজনৈতিক দলকে সভা, সমাবেশ করার অনুমতি দেয়া হোক।

শুক্রবার জাতীয় প্রেস ক্লাবে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

‘মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনা এবং গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে করণীয়’ শীর্ষক এ আলোচনা সভার আয়োজন করে বাংলাদেশ ডেমোক্রেটিক কাউন্সিল।

moudud

ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ বলেন, আমাদের এখনো জনসমাবেশ, মানববন্ধন, মিটিং, মিছিল, বিজয় দিবসের মিছিল করার জন্য অনুমতি নিতে হয়। কিন্ত সরকারদলীয় সবকিছুই চলছে।

তিনি বলেন, এখন থেকে রাজনৈতিক পরিবেশ নির্বাচন কমিশনকে দিতে হবে তা না হলে এই কমিশনের অধীনে সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব হবে না।

প্রধানমন্ত্রীর বগুড়ায় নির্বাচনী প্রচারণার কথা উল্লেখ করে বিএনপির এই নীতি নির্ধারক বলেন, প্রধানমন্ত্রী বগুড়ায় জনসমাবেশ করেছেন এটি নির্বাচনী বিধি কিনা, জনগণ তা জানতে চায়।

বর্তমান সরকারের অধীনের নির্বাচন ব্যবস্থার সমালোচনা করে তিনি বলেন, এককভাবে একের পর এক নির্বাচনের ষড়যন্ত্র জনগণ বুঝতে পারে।

এই কমিশন যদি আমাদের জনসেবা করার সুযোগ দেয়। তাহলেই সুষ্ঠু নির্বাচন করা এই কমিশনের পক্ষে সম্ভব বলেও মন্তব্য করেছেন তিনি।

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মামলা উদ্দেশ্যমূলক মন্তব্য করে মওদুদ বলেন, খালেদা জিয়ার মামলা রাজনৈতিক উদ্দেশ্যমূলক। সরকারে কোনো অর্থ এই মামলার সঙ্গে জড়িত নেই। আর কেউ স্বামীর নামের ট্রাস্টের অর্থ লুটে খায় না, এটা জনগণ খুব ভালো করেই বোঝে।

তিনি আরো বলেন, নাইকো মামলার আসামি ছিলেন শেখ হাসিনা। কিন্তু নিজে খালাস নিয়েছেন। শুধু রাজনৈতিক প্রতিহিংসার কারণে খালেদা জিয়ার নামে মামলা ঝুলিয়ে রেখেছে সরকার।

এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন, আয়োজক সংগঠনের সভাপতি এম এ হালিম, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব মজিবুর রহমান সরোয়ার, বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য আবু নাসের মোহাম্মদ রহমত উল্লাহ প্রমুখ।