২৫ মার্চ ‘গণহত্যা দিবস’ পালনের প্রস্তাব আজ সংসদে উঠছে

সময়ের কণ্ঠস্বর – একাত্তরে পাকিস্তানি বাহিনীর নির্মম বর্বরতায় ‘অপারেশন সার্চ লাইটে’ নিহতদের স্মরণে ২৫ মার্চ ‘গণহত্যা দিবস’ পালনের প্রস্তাব আজ শনিবার সংসদে উঠছে।

জাতীয় সংসদের চতুর্দশ অধিবেশনে বিকেল ৩টায় এই প্রস্তাব তুলবেন সরকার দলীয় জোটের শরিক জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জাসদ) সংসদ সদস্য শিরীন আখতার।

সংসদ সচিবালয় সূত্র জানান, অধিবেশন শুরুর পর প্রস্তাবটি তুলবেন জাসদের সাংসদ শিরীন আখতার। এরপর প্রস্তাবটির ওপর সাধারণ আলোচনা অনুষ্ঠিত হবে। আলোচনার পর প্রস্তাবটি গৃহীত হওয়ার জন্য স্পিকার আহ্বান জানাবেন।

gonohotta

সংসদীয় কার্যপ্রণালী বিধির ১৪৭ নং এর আওতায় আনা প্রস্তাবে বলা হয়েছে, সংসদের অভিমত এই যে, ১৯৭১ সালের ২৫ মার্চ কালরাত্রিতে বর্বর পাকিস্তানি সেনাবাহিনী কর্তৃক সংঘটিত গণহত্যাকে স্মরণ করে ২৫শে মার্চকে গণহত্যা দিবস ঘোষণা করা হোক এবং আন্তর্জাতিকভাবে এ দিবসের স্বীকৃতি আদায়ে প্রয়োজনীয় কার্যক্রম গ্রহণ করা হোক।

গত ১৫ ফেব্রুয়ারি সংসদে এক অনির্ধারিত আলোচনায় সংসদ নেতা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা একাত্তরে পাকিস্তানি বাহিনীর নির্মমতার কথা স্মরণ করে ভবিষ্যৎ প্রজম্মের জন্য ২৫ মার্চ ‘গণহত্যা দিবস’ হিসেবে পালনের উদ্যোগ নেওয়ার কথা জানান। ওই দিন সংসদে এ বিষয়ে আলোচনার সূত্রপাত করেন সরকার দলীয় সাংসদ আওয়ামী লীগের উপদেষ্টাপরিষদ সদস্য ও বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ।