বাংলাদেশি ক্রিকেটারদের হেয় করে ভারতীয় সংবাদমাধ্যমে হাস্যরস!

স্পোর্টস আপডেট ডেস্ক – বাংলাদেশি ক্রিকেটারদের হেয় করে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে ভারতীয় বাংলা পত্রিকা এবেলা। ‘বোল্ড হয়েও ডিআরএস। ফের বাংলাদেশির কীর্তিতে হেসে খুন নেট দুনিয়া। দেখুন ভিডিও’ শিরোনামে করা এবেলার সেই প্রতিবেদনটি সময়ের কণ্ঠস্বর এর পাঠকদের জন্য হুবহু তুলে ধরা হলো –

‘‘বাংলাদেশি ক্রিকেটারদের আজব কাণ্ড কারখানা গোটা বিশ্বেই পরিচিত। কখনও ম্যাচ জয়ের আগেই সেলিব্রেশনে মেতে উঠে ম্যাচ হাতছাড়া করেন, কখনও আবার আম্পায়ারের ওভার বাউন্ডারির নির্দেশ গ্রাহ্য না করেই বোলার মেতে ওঠেন উইকেট প্রাপ্তির আনন্দে।

তবে এ বার যা ঘটল, তা সম্ভবত আগের সমস্ত কাজকর্মকেও ছাড়িয়ে গিয়েছে। ব্যাটসম্যান বোল্ড হয়ে গেলেন, তা সত্ত্বেও ডিআরএসের সাহায্য চাইলেন। এমনটাই ঘটল বাংলাদেশ বনাম শ্রীলঙ্কা গল টেস্টে।

ebala-bd-cricket

ডিআরএসের উদ্ভাবনের পর থেকে কোনও ব্যাটসম্যানই বোল্ড হয়ে ডিআরএস নেওয়ার ‘সাহস’ দেখাননি। তবে সৌম্য সরকার প্রথমবার এই ‘ঐতিহাসিক’ কাণ্ডটি ঘটালেন।

শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে জয়ের জন্য দ্বিতীয় ইনিংসে প্রয়োজন ছিল ৪৫৬ রান। সেই রান তাড়া করতে নেমে ব্যাট করছিলেন বাংলাদেশি ওপেনার সৌম্য সরকার। এক প্রান্ত তিনি আটকে রাখলেও অন্য প্রান্তে উইকেট পতন অব্যাহত ছিল। সেই সময়েই গুণরত্নের বলে বোল্ড হয়ে যান সৌম্য। আম্পায়ারও আউটের সিগন্যাল দিয়ে দেন। তবে নিজের উইকেট বাঁচাতে এতটাই মরিয়া ছিলেন সৌম্য যে, সঙ্গে সঙ্গেই ডিআরএস নিয়ে নেন।

এই টেস্টেই বাংলাদেশি বোলার শুভাশিস রায় ব্যাটসম্যানের কাছে ছক্কা হজম করেও সেলিব্রেশনে মেতে উঠে ট্রোলড হয়েছিলেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। গত বছর বিশ্বকাপেও ম্যাচ জেতার আগেই মুশফিকুর রহিমের সেলিব্রেশনের স্মৃতি এখনও টাটকা। যদিও বাংলাদেশ পরে ৪ বলে ২ রান না তুলতে পেরে হেরে যায়। এমন বিস্ময় বোধহয় বাংলাদেশি ক্রিকেটাররাই উদ্রেক করতে পারেন।’’

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুণ