সুযোগ পেয়ে এবার রিকশায় চড়ে নিজ এলাকা ঘুরলেন রাষ্ট্রপতি

কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি – প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভ্যানে চড়ার তুমুল আলোচিত ঘটনার প্রায় দেড় মাস পর এবার রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদকে রিকশায় চড়তে দেখা গেল।

মিঠামইনের কামালপুর গ্রামে জন্ম নেয়া রাষ্ট্রপতি অ্যাড. আবদুল হামিদের কাছে এলাকার কোনো কিছুই অচেনা নয়। তবে রাষ্ট্রের শীর্ষ পদে থাকার কারণে কিছুতেই খোলা হাওয়ায় ঘুরে বেড়ানো সম্ভব হয়ে উঠে না তার। তবু সামান্য সুযোগ পেলেই এলাকায় মুক্ত হাওয়ায় কিছুটা সময় কাটাতে চান রাষ্ট্রপতি।

হাওরের সফরের বিভিন্ন সময় তিনি কখনও ভটভটি, কখনও অটোরিকশা কখনও বা রিকশা ভ্রমণ করেন।

রোববার দুপুর দেড়টার দিকে রিকশায় চড়ে মিঠামইন বাজার ও বাজারের বিভিন্ন স্থাপনা ঘুরে দেখেন রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ। তাকে এক নজর দেখার জন্য দুই পাশে জড়ো হয় এলাকার মানুষ। তারা রাষ্ট্রপতিকে সালাম জানান। এসময় হাসিমুখে লোকজনকে হাত তুলে শুভেচ্ছা জানান রাষ্ট্রপতি।

president-hamid-rikshaচার দিনের সরকারি সফরে রোববার কিশোরগঞ্জে আসেন রাষ্ট্রপতি। বেলা ১২টা ২০ মিনিটে রাষ্ট্রপতিকে বহনকারী হেলিকপ্টারটি মিঠামইন হেলিপ্যাডে অবতরণ করে। এরপর মিঠামইন জেলা পরিষদ ডাক-বাংলোর সামনে রাষ্ট্রপতিকে গার্ড অব অনার প্রদান করা হয়।

রাষ্ট্রপতির সহকারী একান্ত সচিব আবদুল হাই, রাষ্ট্রপতির বড় ছেলে ও কিশোরগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য রেজওয়ান আহাম্মদ তৌফিক, মুক্তিযোদ্ধা আবদুল হক কলেজের অধ্যক্ষ আবদুল হকসহ সরকারের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা এসময় তার সঙ্গে ছিলেন।

এর আগে মায়ের নামে প্রতিষ্ঠিত তমিজা খাতুন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ভবন উদ্বোধন করেন রাষ্ট্রপতি।

বিকেলে রাষ্ট্রপতি মুক্তিযোদ্ধা আবদুল হক ডিগ্রি কলেজ মাঠে সুধী সমাবেশ শেষে সন্ধ্যায় কলেজের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান উপভোগ করবেন। এরপর নিজ বাড়িতে রাত্রিযাপন করবেন তিনি।

president-hamid-riksha-kishorganj

সোমবার বেলা সাড়ে ১২টা থেকে সন্ধ্যা সাড়ে ৭টা পর্যন্ত ইটনা উপজেলায় বিভিন্ন উন্নয়ন কাজ ও মহেশচন্দ্র বিদ্যানিকেতন পরিদর্শন করবেন তিনি। এরপর নিজের নামে প্রতিষ্ঠিত সরকারি আবদুল হামিদ কলেজের ২০বছর পূর্তি অনুষ্ঠানে যোগ দিবেন রাষ্ট্রপতি।

মঙ্গলবার অষ্টগ্রামে যাবেন রাষ্ট্রপতি। বেলা ১২টা ৫০মিনিটে অষ্টগ্রাম রোটারি ডিগ্রী কলেজের রজতজয়ন্তী অনুষ্ঠানে অংশ নিবেন রাষ্ট্রপতি। পরে সুধী সমাবেশ ও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিদের সঙ্গে মতবিনিময় করবেন তিনি।

রাত্রিযাপন করবেন অষ্ট্রগ্রাম জেলা পরিষদ ডাক বাংলোয়। সফরের শেষ দিন ১৫ মার্চ অষ্টগ্রাম উপজেলার সড়ক ও অন্যান্য উন্নয়নমূলক কাজ পরিদর্শন শেষে সকাল সাড়ে ১১টায় হেলিকপ্টারযোগে ঢাকার উদ্দেশ্যে যাত্রা করার কথা রয়েছে রাষ্ট্রপতির।