বাংলাদেশের শততম টেস্টে বড় ধরনের দুঃসংবাদ পেতে যাচ্ছেন মাহমুদউল্লাহ!

স্পোর্টস আপডেট ডেস্ক – ভযাবহ রান খরার মধ্য দিয়ে যাচ্ছেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। মিডর অর্ডারে দলের অন্যতম ভরসা তিনি। কিন্তু দলের প্রয়োজনের সময় ইদানীং বারবার ব্যর্থ হচ্ছে রিযাদের ব্যাট। দলকেও চরম মূল দিতে হচ্ছে এ জন্য। রঙিন পোশাকের চেয়ে সাদা পোশাকে তিনি বেশি ব্যর্থ হচ্ছেন সাম্প্রতিক সময়ে। গত ১৩ টেস্ট ইনিংসে মাত্র একটিও অর্ধশত করতে পেরেছেন তিনি। গল টেস্টের দুই ইনিংসে তার ব্যাট থেকে এসেছে ৮ ও ০।

রিয়াদের ধারাবাহিক অফ ফর্ম দারুণ চিন্তায় ফেলে দিযেছে টিম ম্যানেজমেন্টকে। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে কলম্বো টেস্টে একাদশের বাইরে রাখা হচ্ছে তাকে। রিয়াদের জায়গায় খেলছেন সাব্বির রহমান। টিম ম্যানেজমেন্টের বড় অংশের চাওয়া এমনটাই। কলম্বো থেকে ঢাকাতেও নাকি জানিয়ে দেওয়া হয়েছে এটা।

ম্যানেজমেন্টের গুরুত্বপূর্ণ অংশ। তাই রিয়াদের একাদশ থেকে বাদ পড়াটা সহজ ব্যাপার নয়। তবে জানা গেছে, টিম ম্যানেজমেন্টের বড় একটা অংশ চাচ্ছে, রিয়াদকে বিশ্রাম দিতে। তাই এ যাত্রায় হয়তো রিয়াদকে একাদশে রাখা সম্ভব হবে না মুশফিকের পক্ষে। রিয়াদ নিজেও তার ফর্ম নিয়ে দারুণ অস্বস্তিতে রয়েছেন। ব্যাটিং কোচ সামারাবিরার সঙ্গে বাড়তি সময় কাটাচ্ছেন। নেটেও বেশি সময় দিচ্ছেন।

mahamudullah

টেস্টে প্রায় দেড় বছর আগে হাফ সেঞ্চুরির দেখা পেয়েছিলেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। এরপর ১৩ ইনিংসে হাফ সেঞ্চুরি এসেছে মাত্র একটি। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে চট্টগ্রাম টেস্টে করেছিলেন ৬৭ রান। গত ১৩ টেস্ট ইনিংসে রিয়াদের রান- ৩৫,৩৮,১৭,১৩,৪৭,২৬,৫,১৯,৩৮, ২৮,৬৪,৮ ও ০।

এদিকে বিশ্বস্ত সূত্রে জানা গেছে, শুধু টেস্ট দল থেকেই নয়, ওয়ানডে ও টি-২০ দল থেকেও আপাতত রিয়াদকে বাদ দেওয়ার পক্ষে টিম ম্যানেজমেন্টের বড় একটা অংশ। বোর্ড প্রেসিডেন্টকে নাকি এ ব্যাপারে অবহিতও করা হয়েছে। কিন্তু অভিজ্ঞতার কথা চিন্তা করে আপাতত ওয়ানডে ও টি-২০ দলে রাখার পক্ষে মত দিয়েছেন বোর্ড প্রেসিডেন্ট।

শুধু বোর্ড প্রেসিডেন্ট নন, নির্বাচক, অপারেশন্স কমিটি তথা টিম ম্যানেজমেন্টর একটি অংশও আপাতত ওয়ানডে ও টি-২০ দল থেকে রিয়াদের আপাতত অনুপস্থিতি চাচ্ছেন না। রিয়াদকে বাদ নিলে অন্য সিনিয়র ও প্রতিষ্ঠিত খেলোয়াড়রাও আস্থাহীনতায় ভুগতে পারেন, এ কারণে রিয়াদ আপাতত সীমিত ওভার দেল থেকে বাদ দেওয়া হচ্ছে না বলে জানা গেছে।