নওগাঁয় কলেজ ছাত্র শ্যামল হত্যা কারীদের গ্রেপ্তার ও তাদের দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন

gh


নওগাঁ প্রতিনিধি:

নওগাঁ শহরস্থ আরজি নওগাঁ এলাকার নওগাঁ পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের ৬ষ্ট সেমিষ্টারের কম্পিউটার ট্রেডের শ্যামল চন্দ্র বর্মন কে হত্যার প্রতিবাদে ও হত্যা কারীদের গ্রেপ্তার এবং তাদের দৃষ্টান্ত মুলক শাস্তির দাবিতে গতকাল সোমবার নওগাঁ পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট চত্বর থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের হয়ে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদিক্ষন শেষে শহরের মুক্তির মোড় গিয়ে ঘন্টা ব্যাপি মানববন্ধন কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধনে শ্যামল চন্দ্র বর্মন কে হত্যার প্রতিবাদে ও হত্যা কারীদের গ্রেপ্তার এবং তাদের দৃষ্টান্ত মুলক শাস্তির দাবিতে বক্তব্য রাখেন নওগাঁ পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের ৭ম সেমিষ্টারের ছাত্র তারিকুল ইসলাম, ৬ষ্ট সেমিষ্টারের আব্দুল্ল্যা, নওগাঁ সরকারী কলেজের ছাত্রলীগ নেতা শাকিল, নওগাঁ পৌরছাত্রলীগের যুগ্ম-আহবায়ক আসাদুজ্জামান শিউল প্রমুখ।

মানববন্ধন চলাকালে বক্তরা বলেন এখন পযর্ন্ত মুল আসামীরা এখনও গ্রেপ্তার হয়নি। তারা পালাতক থেকে তাদের পরিবার দ্বারা ছাত্রদের আন্দোলন বন্ধ করার জন্য বিভিন্ন ভাবে মোবাইলে হুমকি প্রদান করছে। ছাত্ররা ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন অতি স্বত্তর তাদের গ্রেপ্তার না করা হলে তারা নওগাঁ পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট বন্ধ করে তাদের দাবী আদায় না হওয়া পযর্ন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাবে। জেলা পুলিশ সুপার ও জেলা প্রশাসককে তারা হুমকিদাতার নাম ঠিকানা দেওয়ার পরও কোন ব্যবস্থা না নেওয়াই কলেজ চত্বর এলাকায় থমথমে আবস্থা বিরাজ করছে।

উল্লেখ্য গত শুক্রবার আনুমানিক রাত ০৮.০০ টার দিকে সন্ত্রাসীরা তাকে মারপিট করে গুরুত্বর জখম করে। জখমী শ্যামলকে ঢাকায় চিকিৎসার জন্য নিয়ে যাওয়ার পথে গত শনিবার আনুমানিক দুপুর ১২টার দিকে সে মারা যায়। নিহত শ্যামল জেলার পতœীতলা থানার সোনাপুর গ্রামের গোপাল চন্দ্রের ছেলে। এ বিষয়ে নিহত পিতা গোপাল চন্দ্র বর্মন নওগাঁ সদর মডেল থানায় বাদী হয়ে ০৯ জন সহ আরো অজ্ঞাতনামা ৭-৮ জনকে আসামী করে হত্যা মামলা করেছেন। পুলিশ ইতোমধ্যে ৩ জনকে গ্রেফতার করলেও কোন অজ্ঞাত কারনে পুলিশ মূল আসামীদের গ্রেফতার করছেন না বলে ছাত্ররা জানায়।