ছদ্মবেশী ম্যাজিস্ট্রেটের হাতে অশ্লীল ভিডিও ভর্তি কম্পিউটার! দোকানী যুবকের হাতে হাতকড়া !

অভিনব কায়দায় যুবকের কম্পিউটার ভর্তি ‘অশ্লীল ভিডিও’ বের করে হাতকড়া লাগালেন ম্যজিস্ট্রেট!

মোরেলগঞ্জ প্রতিনিধি, সময়ের কণ্ঠস্বর-

ঘটনার আকস্মিকতায় প্রথম ক’মিনিট থ’ মেরে বসে ছিলেন দোকানী যুবক। গত কদিন ধরেই মাঝে মাঝে বিভিন্ন কম্পিউটার ও ভিডিও ডাউনলোডের দোকানে যে অভিযান হচ্ছিলো সে খবরও ছিলো তার কাছে ! সেই মতো প্রয়োজনীয় সতর্কতাও রেখেছিলো । কিন্তু আজ কি কুক্ষনে যে লোকটাকে না চিনেই মোবাইলে ভিডিও ডাউনলোড করতে রাজী হয়েছিলো সে, মাথায় আসছিলোনা হয়তো!  ভেতরে লুকিয়ে রাখা  ‘নিষিদ্ধ ভিডিও’র হার্ডডিস্ক  বের করতে না করতেই ভিডিও ডাউনলোড করতে আসা সাদামাটা মানুষটা হুট করে কেমন ক্ষ্যাপাটে হয়ে গেলো ! ঘটনার আকস্মিকতায় কিছু বুঝে উঠার আগেই ততক্ষনে যুবকের হাতে হাতকড়া।

আগে থেকেই খবর ছিলো ঐ এলাকার বেশ কয়েকটি দোকান থেকে টাকার বিনিময়ে অশ্লীল ভিডিও লোড করা হয় গ্রাহকের মোবাইলে।তবে বারকয়েক বিভিন্ন অভিযানেও মেলেনি তেমন ভিডিও। দোকানীরা কৌশলে ‘আপত্তিকর ভিডিও’ গুলো হয়তো অন্যকোথাও সংরক্ষন করে রাখতো।

তবে এ দফায় বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে  অভিনব কায়দায় অভিযান চালিয়ে শেষ পর্যন্ত ভিডিও লোড দেয়ার আগেই হাতে হাতকড়া পড়েছে রাসেল শেখ (২৮) নামে এক কম্পিটারের  দোকানীর।

সোমবার বেলা ২টার দিকে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নাজিম উদ্দিন মোরেলগঞ্জ সদর বাজারে  একটি কম্পিউটারের দোকানে অভিযান চালান। তবে এ দফায় সরাসরি অভিযান না করে ক্রেতা সেজে বারইখালী গ্রামের শহিদুল ইসলামের ছেলে রাসেলের কম্পিউটারের দোকানে গিয়ে জানতে চান, মোবাইলে গান ও ‘নিষিদ্ধ  ভিডিও’ ডাউনলোড দেয়া যাবে কি না।

টাকার চুক্তিতে রাসেল রাজি হলে কম্পিউটারের পাশে বসে নিজের মোবাইলে ভিডিও ডাউনলোড করার সময় খোদ ম্যজিস্ট্রেটের চোখে ধরা পড়ে কম্পিউটারের পাশে রাখা আলাদা একটি হার্ডড্রাইভ ভর্তি অশ্লীল ভিডিওর ফাইল। এসময় পাশে লুকিয়ে থাকা সঙ্গীয় ফোর্সকে ঘটনাস্থলে আসতে বলে ম্যাজিস্ট্রেট কম্পিউটারের নিয়ন্ত্রণ হাতে নেনে ম্যাজিস্ট্রেট ।  বেরিয়ে আসে দেশি-বিদেশি  হাজারো অশ্লীল ভিডিও ক্লিপ।

Porn-Video-sell-arrest

এর পরেই ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে ওই যুবককে ১০ দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ডাদেশ ও তার কম্পিউটারটি জব্দ করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট।

এসময় অভিযান থেকে বাঁচতে আশেপাশের অন্যান্য কম্পিঊটার ও গান লোডের দোকানীরা গাঁ ঢাকা দেন একইসাথে বাজারের সব ওষুধের দোকানগুলোও বন্ধ হয়ে সম্ভাব্য অভিযান অথবা আসন্ন বিপদ থেকে বাঁচতে!