দেশের সর্ববৃহৎ এলইডি টিভিযুক্ত ডিজিটাল পার্কে থাকছে যত চমক!

লালমোহন থেকে, মোঃ মহির উদ্দীন (মাহিম) চৌধুরী, সময়ের কণ্ঠস্বর-

দ্বীপের রাণী ভোলার লালমোহন উপজেলায় তথা দ্বীপ জেলা জেলা ভোলায় এই সর্ব প্রথম উদ্বোধন হতে যাচ্ছে নান্দনিক কারুকার্যে নির্মিত “সজীব ওয়াজেদ জয়” ডিজিটাল পার্ক। কোমলমতি শিশুদের মনে চিত্তবিনোদন আর ভ্রমনপিপাসু মানুষের মনে প্রশান্তির ছোয়া এনে দিতে ভোলা-৩ এর সাংসদ নুরন্নবী চৌধুরী শাওন এমপির প্রচেস্টায় প্রায় ৫ একর জমির উপর নির্মান করা হয়েছে “সজীব ওয়াজেদ জয়” ডিজিটাল পার্ক।

প্রকৃতির নির্মল হাওয়া, সবুজ গাছ গাছালী ঘেরা, শহরের কোলাহল মুক্ত ছায়াঘেরা মনোরম প্রাকৃতিক পরিবেশে এমপি শাওনের দৃস্টিনন্দন বাড়ি সংলগ্ন সরকারী শাহবাজপুর মহাবিদ্যালয় মাঠেই নির্মিত হয়েছে এই নান্দনিক ডিজিটাল পার্ক। অপেক্ষার প্রহর গুনতে গুনতে আগামী ১৬ ই মার্চ গনপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় বানিজ্য মন্ত্রী আলহাজ্ব তোফায়েল আহম্মেদ এমপি প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এ পার্কের উদ্বোধন করবেন।

আরও একাধিক মন্ত্রী, বিদুৎ ও জ্বালানী প্রতিমন্ত্রী,তথ্য ও যোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী, পরিবেশ ও বন উপমন্ত্রীসহ বিশজনের ও বেশি সরকারদলীয় এমপি এ পার্কের উদ্বোধনী অনুস্ঠানে উপস্থিত থাকবেন বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে।

sajib-joy-Digital--park-3

ফ্রি ইন্টারনেট সার্ভিস ওয়াইফাইযুক্ত ও নান্দনিক কারুকার্যে খচিত এ ডিজিটাল পার্কের প্রত্যক কোনেই রয়েছে দর্শনার্থীদের বিশ্রামের জন্য অত্যাধুনিক বসার স্থান।মাঠের দক্ষিন প্রান্তের মাঝ বরাবর বসানো হয়েছে দেশের সর্ববৃহৎ এলইডি ডিসপ্লে টিভি, যাতে পার্কে আসা দর্শনার্থীরা অনায়াসেই টিভিতে খেলাধুলা, সামাজিক সচেতনতামুলক অনুস্ঠানসহ অন্যান্য অনুস্ঠান উপভোগ করতে পারেন।

মাঠের পশ্চিম প্রান্তে নির্মিত হয়েছে অত্যাধুনিক বসার জন্য ঘাটলা বেস্টিত দিঘীর মত ছোট পুকুর, পুকুরে ঘোরার জন্য রয়েছে স্পীডবোট, ও ব্যাটারী চালিত রাধাঁহাসের আকৃতিতে তৈরী জল হাস। পুকুরের মাঝে নির্মিত হয়েছে ভাসমান নৌকা,যাহার চতুর্দিকে বেস্টন করে রয়েছে পানির ফোয়ারা,আর পানির মধ্য নিমজ্জিত রয়েছে ওয়াটারপ্রুফ রং বেরংয়ের লাইট।

নৌকায় বেস্টিত ফোয়ারা আর পানিতে নিমজ্জিত বাহারী রংয়ের লাইটে রাতের ডিজিটাল পার্ক কেমন দেখায় সে অপেক্ষায় ১৬ ই মার্চের বর্নাঢ্য আয়োজনের উদ্বোধনের জন্য অধীর আগ্রহে প্রতীক্ষমান দ্বীপের রাণী ভোলার লালমোহন উপজেলাবাসী। পার্কটির পশ্চিম প্রান্তের দক্ষিন কোনে যুক্ত হয়েছে বাচ্চাদের জন্য, ওয়ান্ডার হুইল(নাগরদোলা), মিনি ইলেকট্রিক ট্রেন, স্কয়ার দোলনা, ইউ দোলনা, এল দোলনা, মাকরসার জাল, স্লিপার গ্রাউন্ড সেট, আরও অন্যান্য আধুনিক খেলার সামগ্রী। পার্কের পশ্চিম পাশেই এমপি শাওনের দৃস্টিনন্দন বাড়ি।

sajib-joy-Digital-Park

উত্তর পাশেই অবস্থিত সরকারী শাহবাজপুর মহাবিদ্যালয়ের সবুজ ছায়া ঘেরা পুকুর ও কলেজের সুরম্য ভবন। সব মিলিয়ে দুর থেকে ঘুরতে আসা দর্শনার্থীদের আকৃস্ট করবে এ ডিজিটাল পার্ক।

উদ্বোধনী অনুস্ঠানকে সফল করার জন্য নিরলসভাবে কাজ করছে উপজেলা আওয়ামীলীগসহ এমপি শাওনের ভ্যানগার্ড হিসেবে পরিচিত পৌরসভা যুবলীগ। পৌর যুবলীগের সভাপতি ও উদ্বোধনী অনুস্ঠানের আগত অতিথিদের অর্ভর্থ্যনার দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতা মোঃ ফরহাদ হোসেন (মেহের) জানান এই স্মরনীয় উদ্বোধনী অনুস্ঠানকে সফল করার জন্য তাহার নেতৃত্বে পৌরসভা যুবলীগের ৫০০ শতাধিক নেতাকর্মী দিনরাত কাজ করে যাচ্ছেন।

sajib-joy-Digital--park-2

আগত অতিথিদের স্বাগত জানাতে ব্যানার,ফেস্টুন, আর তোরনে ছেয়ে গেছে পৌরসভার অলিগলি।চারদিকে সাঁজ সাঁজ রব। শুধুই অপেক্ষা ১৬ই মার্চ। নির্ভরযোগ্য সুত্রে জানা যায়, এ পার্কটি কোন রকম টিকেটবিহীন সকলের জন্য উম্মুক্ত থাকবে। উদ্বোধন শেষে পার্কটি তত্বাবধানের জন্য লালমোহন পৌরসভার নিকট হস্তান্তর করা হবে বলে জানা গেছে।