মধুর সাথে পেঁয়াজের রস, পুরুষের শক্তি বৃদ্ধির চমৎকার ওষুধ

news_picture_48247_onion-and-honey


লাইফস্টাইল ডেস্কঃ

বয়স বাড়ার সঙ্গে স্বাভাবিক ভাবেই পুরুষের যৌনশক্তি কমতে থাকে। তিরিশের পর যেভাবে যৌনজীবন উপভোগ করেছেন, পঁঞ্চাশের পর তা সম্ভব নয়। আবার কাজের চাপ, স্ট্রেস, পর্যাপ্ত ঘুমের অভাব এবং উচ্চ রক্তচাপের কারণেও দ্রুত যৌন ক্ষমতা হারিয়ে ফেলতে পারেন। বর্তমান লাইফস্টাইল ছাড়াও হস্তমৈথুনের অভ্যাস দীর্ঘদিন ধরে থাকলে পুরুষের লিঙ্গ শিথিল হয়ে যেতে পারে। লিঙ্গে ঋজুতার অভাবে ভুগছেন, এমন পুরুষ কিন্তু কম নেই। ভুক্তভোগীরা হতাশ না হয়ে, নীচে উল্লেখিত ঘরোয়া টোটকা করে দেখতে পারেন। উপকার পাবেনই।

কিছুই না এ জন্য লাগবে পেঁয়াজ আর খাঁটি মধু। মধুর উপকারিতা সম্পর্কে নতুন করে কিছু বলার নেই। আর পেঁয়াজের মধ্যে আপনি নানাবিধ গুরুত্বপূর্ণ মিনারেলস ছাড়াও পাবেন ভিটামিন বি-৬, ভিটামিন সি এবং অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট। ত্বকের ও চুলের সমস্যায় পেঁয়াজের ব্যবহার অনেকেই জানেন। কিন্তু পেঁয়াজ যে ক্যানসারের ঝুঁকি অনেকটাই কমিয়ে আনে, তা আমাদের অজানা। এমনকী অনিদ্রার ওষুধও হল পেঁয়াজের রস। আবার মধুর সংস্পর্শে এই পেঁয়াজ পুরুষের যৌনশক্তির জন্য চমত্‍‌কার ওষুধ।

কী করে খাবেন এই মিশ্রণ

প্রস্তুতি ১: লাগবে ২৫০ গ্রাম পেঁয়াজ ও ২৫০ গ্রাম মধু। পেঁয়াজের রস বের করে নিয়ে মধুর সঙ্গে ভালো করে মিশিয়ে হালকা আঁচে ফোটাতে থাকুন। পেঁয়াজের পুরো রস বেরিয়ে না যাওয়া পর্যন্ত ফোটাতে হবে। এবার মিশ্রণটি ঠান্ডা করে কাচের শিশিতে তুলে রাখুন। রোজ ২ চামচ করে গরম দুধে রাতে খেয়ে শুয়ে পড়ুন। অন্তত ৪০ দিন খেতে হবে।

হাতে সময় না-থাকলে, এ ভাবেও মিশ্রণটি তৈরি করে নিতে পারেন-

প্রস্তুতি ২: একটি বড় লাল পেঁয়াজের খোসা ছাড়িয়ে ধুয়ে নিন। এরপর ব্লেন্ডারে ভালো করে পিষে, পেঁয়াজের রস চা-ছাকনিতে ছেকে নিন। পরিষ্কার এক টুকরো কাপড়ের মধ্য দিয়েও রস ছেকে বের করে নিতে পারেন। ক’চামচ রস বেরোল, তা দেখে নিয়ে তাতে সমপরিমাণ মধু দিন। অর্থাত্‍‌ চার চামচ রস হলে, চার চামচই মধু দিতে হবে। একটি কাচের ছোট পাত্রে মধু ও পেঁয়াজের রস ভালো করে মিশিয়ে, ফ্রিজে রেখে দিন। সকালে ঘুম থেকে উঠে ও রাতে শুতে যাওয়ার আগে এই মিশ্রণটি দু-চামচ করে, দিনে চার চামচ খান।

একমাসের মধ্যেই পার্থক্য বুঝতে পারবেন। শিথিল, ঝিমিয়ে পড়া কুঞ্চিত লিঙ্গ আগের মতো চাঙ্গা ও পুরুষ্ট হয়ে উঠবে। যৌনমিলনের সময় শিথিলতার সমস্যা আর থাকবে না। তবে, ভালো ফল পেতে হলে ধীরে ধীরে হস্তমৈথুন ছাড়তেই হবে।

যা মাথায় রাখবেন: এই মিশ্রণটি যতদিন খাবেন, স্পাইসি খাবার এড়িয়ে চলতে হবে। টকও খাওয়া যাবে না। যৌন কার্যকলাপও বন্ধ রাখতে হবে।

পুরুষদের যৌন সমস্যা না থাকলেও, এই মিশ্রণটি খাওয়া যাবে। তাতে থাকবেন ইয়াং অ্যান্ড ফিট।