শরীয়তপুরে অা.লী‌গের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে ১২ জন গুলিবিদ্ধ

শরীয়তপুর প্রতিনিধি: জেলার জা‌জিরা উপ‌জেলায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগ নেতা ও অাওয়ামী লী‌গের ‌নেতার সংঘর্ষে ১২ জন গুলিবিদ্ধ হয়েছেন। এসময় দুই প‌ক্ষের অর্ধশতা‌ধিক লোকজন অাহত হ‌য়ে‌ছে।

শনিবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত গঙ্গানগর বাজারে থেমে থেমে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

আহতরা হ‌লেন, জয়নগর ইউনিয়নের উত্তর কেবলনগর গ্রামের মান্নান কাজী (৬০), দিপু কাজী (৩৫), সায়েদ কাজী (৪২), সাহানাজ কাজী (৪২), জনু চৌকিদার (৭০) নাম জানা গেছে। আহতদের জাজিরা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও সদর হাসপাতা‌লে ভর্তি করা হয়েছে। অার, একজনকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঢাকা মেডিকেলে পাঠানো হয়েছে।

জাজিরা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. নজরুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, স্থানীয় ছাত্রলীগ নেতা মিথুন ঢালী ও জয়নগর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান কাজী আমিনুল ইসলাম মিন্টুর সমর্থকদের মধ্যে দীর্ঘদিন যাবৎ কোন্দল চল‌ছিল। এরই সূত্র ধরে দুই গ্রুপের লোকজন শনিবার সকালে সংঘর্ষে জড়িয়ে প‌রে।

Screenshot_40

ফাইল ছবি

তি‌নি অা‌রো জানান, এ সময় তা‌দের ছোড়া গু‌লি‌তে দুই গ্রুপের অন্তত ১২ জন গুলিবিদ্ধ হয়। আহতদের জাজিরা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহতদের ম‌ধ্যে দিপু কাজীর অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাকে ঢাকা মেডিকেলে পাঠানো হয়েছে। ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। মামলার প্রস্তুতি চলছে।

জাজিরা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক ডা. নাজমুল ‌হো‌সেন বলেন, গুলিবিদ্ধ হয়ে ১১ জন হসপাতা‌লে এ‌সে‌ছে। তাদের শরীরের বিভিন্ন যায়গায় গুলি ‌লেগেছে। ১০ জন আশঙ্কামুক্ত অবস্থায় ভ‌র্তি র‌য়ে‌ছে। একজন‌কে আশঙ্কাজনক হওয়ায় ঢাকা মেডিকেলে রেফার্ড করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে ছাত্রলীগ নেতা মিথুন ঢালী বলেন, অাওয়ামীলীগ নেতা কাজী আমিনুল ইসলাম মিন্টুর হুকুমে তার লোকজন আমার লোকদের ওপর হামলা চালায়। তাদের হামলায় আমার লোকজন আহত হয়েছে।

জয়নগর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান কাজী আমিনুল ইসলাম মিন্টুকে পাওয়া যায়‌নি।