আকস্মিক নিজের গাঁয়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন দিলো প্রেমিক! স্তব্ধ প্রেমিকা !

প্রেমিকার সামনেই গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন জ্বালিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা যুবকের!

সময়ের কণ্ঠস্বর ,ঢাকা –

রাজধানীর সোবহানবাগে প্রেমিকার সঙ্গে ঝগড়া করে প্রেমিকার সামনেই গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন জ্বালিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন  সুমন কুমার পাল (২৬) নামের এক যুবক।

এই ঘটনায় সুমনের  শ্বাসনালীসহ শরীরের বিভিন্ন অংশ পুড়ে  গেছে। মারাত্মক দগ্ধ অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়েছে যুবককে । সুমন বেসরকারি ড্যাফোডিল বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পাস করে আপাতত চাকরির সন্ধান করছিলেন বলে  জানিয়েছে তার বন্ধুরা ।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে সুমনের প্রেমিকার বরাত দিয়ে সুমনের এক বন্ধু সময়ের কণ্ঠস্বরকে জানান, এমন আকস্মিক ঘটনায় সুমনের প্রেমিকা ‘স্তব্ধ’ হয়ে গেছেন। মেয়েটি তার বন্ধুকে জানায়, মাত্র কয়েকসেকেন্ডের ব্যপার, সামান্য ভুলবোঝাবুঝির ঘটনায় আমার সামনেই কেরোসিনের একটি বোতল নিজের গাঁয়ে ঢেলে দেয় সুমন! কিছু বুঝে উঠার আগেই ম্যাচ বের করে আগুন জালায় শরীরে। ঘটনার আকস্মিকতায় আমি স্তব্ধ হয়েছিলাম । পরে চিৎকার করলে আশে পাশের মানুষ ছুটে আসে।

চিকিৎসকের বরাত দিয়ে  মেডিকেল পুলিশ ফাঁড়ির এসআই মো. বাচ্চু মিয়া সময়ের কণ্ঠস্বরকে জানিয়েছেন,সুমনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। শনিবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে সোবহানবাগে ডেন্টাল কলেজ ছাত্রাবাসের পাশে গায়ে আগুন দেন সুমন। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে হাসপাতালে আনা হয়।

এস আই বাচ্চু মিয়া আরও জানান, সুমনের বাড়ি যশোর জেলার অভয়নগরের পূর্বনলিশিয়া গ্রামে। স্বপন কুমার পালের ছেলে তিনি। ধানমন্ডির তল্লাবাগের একটি মেসে থাকেন সুমন।

সুমনকে হাসপাতালে নিয়ে আসা কামরুল ইসলাম নামের  এক বন্ধু বলেন, ড্যাফোডিল বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের এক ছাত্রীর সঙ্গে সুমনের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। “সম্পর্কে টানাপড়নের কারণে বিকেলে সুমন ওই ছাত্রীকে ডেন্টাল কলেজ হোস্টেলের পাশে ডেকে আনেন। কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে সুমন নিজের গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেন।”

সুমনের ঐ বন্ধু আরও জানান, দীর্ঘদিন ধরে  চাকরি না পাওয়ায় হতাশায় ভুগছিলেন সুমন অন্যদিকে  সম্পর্কে টানাপোড়েন এই দুয়ে মিলে মানসিকভাবে বিপর্যস্ত ছিলেন তিনি।

বার্ন ইউনিটে দায়িত্বরত চিকিৎসক ফাহমিদা জানান, সুমনের শ্বাসনালীসহ শরীরের ৩৬ শতাংশ পুড়ে গেছে।