নোয়াখালীকে বিভাগ করার দাবি সৌদি আরবে বসবাসরত জেলার বাসিন্দারা

প্রবাসের কথাঃ নোয়াখালীকে বিভাগ করার দাবি জানিয়েছে সৌদি আরবে বসবাসরত জেলার বাসিন্দারা। তারা নোয়াখালীকে বিভাগ ঘোষণা করার দাবিতে তীব্র আন্দোলন গড়ে তোলার ওপর একমত পোষণ করেছেন।

সৌদি আরবের রিয়াদে বৃহত্তর নোয়াখালীবাসীর সংগঠন গ্রেটার নোয়াখালী অ্যাসোসিয়েশন ইন সৌদি আরবের (জিএনএএসএ) এক প্রতিনিধি সভায় এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। গত ১১ মে রিয়াদের বাথাস্থ এনামুল হক ভূঁইয়া কমিউনিটি সেন্টারে এই সভা হয়। পবিত্র কোরআন শরিফ তেলাওয়াতের মাধ্যমে সভা শুরু হয়। ড. রেজাউল করিমের সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য দেন হেলাল উদ্দিন ফিরোজ, আবুল হাসনাত সুমন, আলমগীর কবির, রফিকুল হায়দার ভূঁইয়া, জহিরুল হক ভূঁইয়া, ভিপি নিজাম, আবুল বাশার বাহার, হাবিবুর রহমান জাফর, আশরাফুল ইসলাম সুমন, অধ্যাপক ওয়াহিদুল করিমসহ আরো অনেকে।

জাহাঙ্গীর আলম ও সাইফুর রহমান নিটোলের সঞ্চালনায় বক্তারা বৃহত্তর নোয়াখালীর আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে নিজেদের সম্পৃক্ত রাখার অঙ্গীকার করেন। সভায় সূচনা সংগীত পরিবেশন করেন ক্লোজআপ ওয়ান শিল্পী রিজভী। সভায় নোয়াখালীকে বিভাগ ঘোষণা করার দাবিতে তীব্র আন্দোলন গড়ে তোলার ওপর ঐকমত্য পোষণ করা হয়। তিন জেলার প্রবাসী বয়োজ্যেষ্ঠ ব্যক্তি ও বিশিষ্টজনরা প্রতিনিধি সভায় অংশগ্রহণ করেন।

সভায় গ্রেটার নোয়াখালী অ্যাসোসিয়েশন ইন সৌদি আরব সংগঠনের গঠনতন্ত্র তৈরির সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এজন্য কমিটি করা হয়। কমিটিতে আছেন হেলাল উদ্দিন ফিরোজ, ফারুক আহমেদ চান, রফিকুল হায়দার ভূঁইয়া, সুমন পাটোয়ারী, সাইফুর রহমান নিটোল ও আবুল হাসনাত। উপদেষ্টা হিসেবে আছেন অধ্যাপক ওয়াহিদুল করিম ও আবুল বাশার বাহার। সংগঠনের লোগো তৈরির জন্যও কমিটি করা হয়। এতে আছেন মো. আলী, আলমগীর ও সিরাজুল হক। ওয়েবসাইট তৈরি সংক্রান্ত কমিটিতে আছেন মেহরাজ ইকবাল ফারুক ও আরিফুর রহমান। মিডিয়া/সাইবার বিষয়ক কমিটিতে আছেন ফারুক আহমেদ চান, মাহফুজ পাটোয়ারী, আরিফুর রহমান ও মেহরাজ ইকবাল ফারুক।

সভায় আরো সিদ্ধান্ত হয়, চলতি বছর বড় আকারে নোয়াখালী উৎসব পালন করা হবে। এই উপলক্ষে ভোজের জন্য গোলাম মাওলা একটি গরু কিনে দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন। এ ছাড়া উৎসবকে সফল করতে সবাই এক হয়ে কাজ করার অঙ্গীকার করেন। সুমন পাটোয়ারী তাঁর মরহুম বাবার নামে ট্রাস্ট থেকে মেধাবী ছাত্রছাত্রীদের বৃত্তি দেওয়ার ঘোষণা দেন। আরো অনেকের কাছ থেকে অনেক ঘোষণা আসে।