ঠাকুরগাঁওয়ে নানার বয়সী এক নরপশুর বিকৃত লালসার শিকার হল ৩য় শ্রেণীর ছাত্র!

কামরুল হাসান, ঠাকুরগাঁও জেলা প্রতিনিধিঃ

ঠাকুরগাঁওয়ে নানার বয়সী এক নরপশুর বিকৃত লালসার শিকার হয়েছে ৩য় শ্রেণীর এক স্কুল ছাত্র! গত বুধবার ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার বান্দিগড় বানিয়াপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। অতিরিক্ত রক্ত ক্ষরণের কারণে ভুক্তভোগী ওই ছাত্রকে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করে রাখা হয়েছে।

হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার বান্দিগড় বানিয়াপাড়া গ্রামের বাবুল হোসেনের ছেলে পারভেজ (১১) বালুয়াডাঙ্গা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৩য় শ্রেনীতে পড়াশোনা করে। প্রতিদিনের ন্যায় গত বুধবার সকালে সে স্কুলে যায় এবং বেলা ১ টার দিকে স্কুল থেকে বাড়ি ফেরার পথে একই গ্রামের রাজা (৪৯) নামে এক ব্যক্তি টাকার লোভ দেখিয়ে শিশুটিকে মাথা মালিস করতে দেয়। মাথা মালিস শেষে রাজা তাকে পার্শবর্তী ভুট্টা ক্ষেতে জোরপূর্বক নিয়ে গিয়ে পাশবিক নির্যাতন করে। এতে শিশুটির পায়ুপথ ফেঁটে গিয়ে রক্তপাত হয়। শিশুটি কোনমতে বাড়ি ফিরে তার নানীকে ঘটনার কথা জানালে তাকে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এ ব্যাপারে হাসপাতালের সার্জারি বিভাগের চিকিৎসক ডা. শুভেন্দু কুমার দেবনাথের সঙ্গে মুঠোফোনে কথা বললে তিনি সময়ের কণ্ঠস্বরকে জানান, শিশুটির পায়ুপথ ফেঁটে গিয়ে রক্তপাতের ঘটনা ঘটেছে। সে বর্তমানে সার্জারী বিভাগে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

১৯নং বেগুনবাড়ি ইউপি চেয়ারম্যান বনি আমিন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে এই প্রতিবেদককে বলেছেন, যে ব্যক্তি একটি শিশুর সঙ্গে এ ধরনের জঘন্যতম কাজ করতে পারে তার উপযুক্ত শাস্তি হওয়া উচিত। তিনি আরো বলেন, আমার ইউনিয়নে মাদক থেকে শুরু করে কোন অন্যায় আমি প্রশ্রয় দেইনি আর কখনো দিবনা। অপরাধী যে দলেরই লোক হোক না কেন।

এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত থানায় কোন মামলা হয়নি। তবে ঠাকুরগাঁও সদর থানার ওসি মশিউর রহমান সময়ের কণ্ঠস্বরকে জানান, খবরটি শুনে তিনি হাসপাতালে লোক পাঠিয়েছেন। অভিযোগ পেলে দায়ী ব্যক্তির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply