পাশবিকতার নয়া অধ্যায়! এবার এক বৃদ্ধের বিকৃত লালসার শিকার হল একইসাথে দুই অবোধ শিশু!

জয়পুরহাট প্রতিনিধি, সময়ের কণ্ঠস্বর-
জয়পুরহাটের পাঁচবিবিতে আবু সালাম মোল্লা (৫৫) নামের এক বৃদ্ধ লম্পট কতৃক একসাথে দুই শিশুকে ধর্ষণ করার অভিযোগে তোলপার শুরু হয়েছ পুরো এলাকায় ।

আহত অবস্থায় ওই দুই শিশুকে জয়পুরহাট জেলা আধুনিক হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা হয়েছে। শিশুদুটির পারিবারিক সুত্র জানিয়েছে, দুটি শিশুই এই ঘটনায় মারাত্মক আতংকগ্রস্থ হয়ে পড়েছে। শিশু দুটির বয়স সাত বছর ও নয় বছর।তারা পরস্পর চাচাতো বোন।

এ ঘটনায়  এক শিশুর বাবা বাদী হয়ে পাঁচবিবি থানায় মামলা করেছেন। ঐ দুই শিশুকে হাসপাতালে ভর্তির পর পুলিশের কাছে অভিযোগ করলে পাঁচবিবি থানার পুলিশ আবু সালাম মোল্লাকে গ্রেপ্তার করেছে।

পুলিশ ও ধর্ষিত শিশুদের পরিবার সূত্রে জানা গেছে, শুক্রবার দুপুরে পাঁচবিবির বীরনগর গ্রামের আবু সালাম মোল্লা পাশের বাড়ির দুই শিশুকে তার বাড়িতে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করে। ওই সময় শিশু দুটি কান্নাকাটি শুরু করলে সে তাদের ছেড়ে দিয়ে বাড়ির ভেতর আত্মগোপন করে। ছাড়া পেয়ে কাঁদতে কাঁদতে বাড়ি গিয়ে শিশু দুটি তাদের মা ও বড় বোনের কাছে ঘটনা জানায়।

পাঁচবিবি থানার পুলিশ ও দুই শিশুর পরিবার সূত্রে জানা গেছে, শুক্রবার দুপুরের দিকে পাঁচবিবির একই গ্রামের ও একই পাড়ার নিকট প্রতিবেশী আবু সালাম মোল্লা ওই শিশু দুটিকে ধর্ষণ করেন। শিশু দুটি ওই ব্যক্তির বাড়ির সামনে খেলা করছিল। আবু সালামের বাড়িতে তখন কেউ ছিল না।

ওই শিশু দুটির বরাত দিয়ে পারিবারিক সুত্র জানায়, সালাম মোল্লাকে শিশু দুটি দাদু  বলে ডাকতো ।শুক্রবার দুপুরে তাদেরকে  ঘরে ডেকে খেলার জন্য বলে। এরপর একজনকে নিয়ে পাশের ঘরে যায় ও মুখ চেপে ধর্ষণ করে । এরপর তাকে মেরে ফেলার হুমকি দিয়ে ঘরে আটকে রেখে প্রায় আধাঘন্টা পর আগের ঘরে ফিরে এসে দ্বিতীয় শিশুটিকেও একইকায়দায় ধর্ষণ করে। পরে দুজনকেই শাসিয়ে বলে কাউকে বললে মেরে ফেলবে। এরপর শিশু দুটি বাড়িতে ফিরলে তাদের চোখেমুখে আতংক দেখে সন্দেহ হয় পরিবারের। কিছুক্ষণ পর দুটি শিশুই শারীরিক ভাবে অসুস্থ্য হয়ে পড়লে তাদেরকে জয়পুরহাট জেলা আধুনিক হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা হয়।

শিশু দুটির শারীরিক অবস্থা সম্পর্কে জানতে চাইলে হাসপাতালের জরুরি বিভাগের কর্মরত চিকিৎসক ফিরোজ হোসেন সময়ের কণ্ঠস্বরকে জানান, বেলা সাড়ে তিনটার দিকে ওই দুই শিশুকে জরুরি বিভাগে আনা হয়। অভিভাবকদের কাছে ঘটনার কথা শুনে তাদের শিশু ওয়ার্ডে ভর্তি করানো হয়। গাইনি বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক তাঁদের পরীক্ষা করবেন।শিশু দুটির শরীরে ধর্ষণের প্রাথমিক আলামত দেখা গেছে বলেও জানান তিনি ।

এদিকে, পাঁচবিবি থানার পরিদর্শক (তদন্ত) কিরণ চন্দ্র রায় সময়ের কণ্ঠস্বরকে বলেন, এ ঘটনায় গ্রেপ্তার হওয়া আবু সালাম মোল্লা পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে ধর্ষণের কথা প্রাথমিকভাবে স্বীকার করেছেন।