প্রেমিককে ইয়াবা দিয়ে ফাঁসাতে গিয়ে ফেঁসে গেলেন প্রেমিকা, কাঁদতে কাঁদতে জানালেন পরিকল্পনার কথা!

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি: নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয় গতকাল বুধবার প্রেমিককে ইয়াবা দিয়ে ফাঁসাতে গিয়ে ফেঁসে গেছেন প্রেমিকা। এ ঘটনায় অভিযুক্ত প্রেমিকা যাদু খান নূপুরের বিরুদ্ধে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেছেন প্রেমিক ছাত্রলীগ নেতা হেনায়েত হোসাইন।

এলাকাবাসী ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা থানার চন্দ্রপুর গ্রামের যাদু খান নূপুর সোনারগাঁ উপজেলার কাঁচপুর সেনপাড়া এলাকায় একটি বাড়িতে ভাড়া থাকেন। আর হেনায়েত হোসাইন নরসিংদীর পলাশ উপজেলার কাজৈর গ্রামের আব্দুল হাকিমের ছেলে ও ডাঙ্গা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক। কয়েক মাস আগে যাদুর সঙ্গে হেনায়েতের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। গতকাল সকালে তাঁরা সোনারগাঁয় বাংলাদেশ লোক ও কারুশিল্প ফাউন্ডেশনে ঘুরতে আসেন। পরে ফাউন্ডেশনের বাইরে একটি রেস্তোরাঁয় খাবার খাওয়ার সময় পুলিশ তল্লাশি করে যাদুর কাছে ১৩০টি ইয়াবা বড়ি পায়। যাদু জানান, এই ইয়াবা তিনি প্রেমিক হেনায়েতের পকেটে ঢুকিয়ে তাঁকে পুলিশ দিয়ে আটক করাতে চেয়েছিলেন।

গতকাল দুপুরে থানাহাজতে থাকা যাদু খান নূপুর বলেন, তিনি তাঁর বন্ধু সজীব মিয়ার কথামতো হেনায়েত হোসাইনের সঙ্গে আট মাস আগে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলেন। তাঁর বন্ধুর কথামতো তিনি ইয়াবা দিয়ে প্রেমিক হেনায়েতকে ফাঁসাতে গিয়ে নিজেই ফেঁসে গেলেন। এ কথা বলে তিনি কান্নায় ভেঙে পড়েন।

হেনায়েত হোসাইন বলেন, ‘আমি ষড়যন্ত্রের শিকার। আমার প্রতিপক্ষ সজীব মিয়া আমাকে রাজনৈতিকভাবে হেয় করার জন্য যাদু খান নূপুরের মাধ্যমে ইয়াবা দিয়ে ফাঁসাতে চেয়েছিল। ’

সোনারগাঁ থানার ওসি মোর্শেদ আলম জানান, এ বিষয়ে লিখিত অভিযোগ নেওয়া হয়েছে। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।